প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৈশাখ ১২৮২ । ভারতের একতা । بیسیمی-بی- جاستیسیسی ১৯ | | মহামূল্য তত্ত্ব ইতিপূৰ্বেই উদ্ভাবিত হই |ਂ। কিন্তু বরাবর এবিষয়ে একটি | গুরুতর অভাব রহিয়াছে। বিভিন্নদেশীয় পুরাবিদগণ অন্যনিরপেক্ষ হইয়৷ | মুদ্রিত করাতে, তাহা ইয়ুরোপীয়" পণ্ডিত | মণ্ডলীতে উচিত মত প্রচারিত হয় না এবং র্তাহীদের মধ্যে বিশিষ্টরূপ সমদুঃখমুখতা ও সস্তুসমূথান ঘটে না। | অন্য কোন সহযোগীর মত দূষণপূর্বক নিজ মত স্থাপন করিতে পরিলেই আপনাকে কৃতার্থ ভাবেন। ইহার ফল কেবল পরস্পরের প্রতি ঈর্ষা ও কুসংস্কার। | তন্নিবন্ধন প্রাচীন ইতিহাস সম্বন্ধে দারুণ | মতভেদ ঘটে এবং একটি বিষয়কে সৰ্ব্ববাদি সম্মত করিতে অনেক সময় লাগে | | জ্ঞানোন্নতি বিষয়ে এই গুরুতর অন্তরায়ের নিবারণার্থ গতবৎসর পারিসে একটি সভার অধিবেশন হয়। ইয়ুরোপের তাবৎ প্রাচ্য পুরাবেত্ত্বগণ তাহাতে সাদরে আহত হন। তাহারা সমবেত হইয়া নিজ নিজ মতের | প্রতিপোষক প্রমণ পরীক্ষা প্রদর্শন করি| লেন। যাহা সৰ্ব্বাসিন্মত, তাহাই | সিদ্ধান্ত রূপে পরিগৃহীত হইতে লাগিল। সামঞ্জস্য হওয়াতে ভাবী উন্নতির পথ | পরিষ্কৃত হইল। আমরা পারিসের সভা | সম্বন্ধীয় বিশেষ বিবরণ পাঠ করি নাই। | সকলেই স্বয়ং হইয়া কাৰ্য্য করেন এবং করিয়া চমৎকৃত হইয়াছি। ফ্ৰান্স, * জৰ্ম্মনি, অস্ত্রিয়া, রুসিয়া ও সুইডেন হইতে | পণ্ডিতগণ ব্রিটনের রাজধানীতে এবৎসর সমবেত হইয়াছিলেন। আমাদের ভারতবর্যও উদাসীন ছিলেন না। বোম্বায়ের । প্রসিদ্ধ পুরাবিং শুকরাম পাদুরাও তথায় উপস্থিত ছিলেন । পুরাবৃত্ত সম্পর্কে নানা প্রবন্ধ পাঠ ও বক্তৃত হয়। কিন্তু একটি দারুণ ব্যাঘাত বশতঃ যথোচিত ফল লাভ হয় নাই। মনীষিগণ নিজ নিজ ভাষাতে স্ব l স্ব মত ব্যক্ত করাতে ভিন্নদেশীয় শ্রোতা | দিগকে বধিরের ন্যায় শুদ্ধ বসিয়া থাকিতে | হইয়াছিল। যখন জৰ্ম্মান পঞ্জিত বলেন, তখন ইংরাজ, ফরাসি, রুশ কিছুই বুঝেন না। আবার যখন রুশ সভ্য উঠেন, তখন ইংরাজ, ফরাসি, অস্ত্রিয় শ্রোতা কিছুই অবগত হন না। কিন্তু শিষ্টাচারের অনুরোধে সকলকেই প্রকৃত শ্রোতার ন্যায় | বসিয়া থাকিতে হয় এবং পরস্পরের মুখ | চাওয়া চাওয়ি করিয়া কাল কাটাইতে হয়। কি করেন, কিছু বলিবার যো নাই। } আগামী বৎসর সেন্টপিটসবর্গে তৃতীয় সভার অধিবেশন নিৰ্দ্ধারিত হইয়াছে। কিন্তু কিরূপে এই প্রতিবন্ধকতাটি নিরস্ত হইবেক, বলা যায় না। সমগ্র ইয়ুরোপের কোন সাধারণ ভাষা নাই, হইবারও সস্তাবনা নাই। যাহাহউক | আপাততঃ উক্ত অসুবিধা যত পরিহার্য্য বলিয়া বোধ হউক না, ইয়ুরোপীয় প্রতিভা বলে অনতিচিরকালের মধ্যেই উহার অন্ততঃ আংশিক নিরীকরণ হইবেক, এমন | প্রত্যাশা করা যাইতে পারে। ইতিমধ্যেই |