প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৩০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ミふパッ জের যাবতীয় লোকের প্রকৃতি নেআই বীক্ষণিক দৃষ্টিতে পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে পৰ্য্য বেক্ষণ করিয়া দেখিয়া থাকেন। এপ্রকার। হুক্ষদৃষ্টি সকলের অভ্যস্ত হয় না। এক একজনের মানসিক প্রকৃতিই এইরূপ যে তাহারা সকল বিষয় অভিনিবেশ সহকারে তন্ন তন্ন করিয়া আপনাপনিই দেখিয়া থাকেন, তাহার জন্য বিভিন্ন শিক্ষার আবশ্যক হয় না। তবে স্বাভাবিক: গুণ যে ভূয়োদর্শনে অধিকতর উন্নত ও প্রবৃদ্ধ হইতে পারে তাহার আর সন্দেহ নাই। শিক্ষিত ব্যক্তির যদি এপ্রকার স্বাভাবিক স্বক্ষদৃষ্টি থাকে তাহার ক্রমশই তীক্ষুত সম্পাদিত হইবার বিলক্ষণ সম্ভাবনা। অনেক কুচরিত্র লোকের এই স্বক্ষদৃষ্টি ক্রমশঃ ক্ষয়প্রাপ্ত হইয়াছে। যাহা হউক এতদ্বিষয়ক সম্পূর্ণ জম্পন ও তর্ক উত্থাপন করা আমার উদেশ্য নহে ; তবে সকল প্রকার লোকের সংসর্গে না বেড়াইলে যে প্রকৃতিবোধ উৎপত্তি হয় না একথা সত্য বলিয়া স্বীকার করিতে পারি না । যে কারণেই প্রকৃতিবোধ উৎপন্ন হউক না কেন, প্রকৃতিবোধ থাকিলে | মানবপ্রকৃতিগত দোষ গুণ এবং কাহার | প্রকৃতিতে কোন গুণ ও দোষ গুলি বিশেষ লক্ষ্য স্থল ও দেদীপ্যমান রহিয়াছে, | তাহা যেন সহজজ্ঞানে প্রতীত इंद्देश्ड | থাকে। বাঙ্গালীর সমক্ষে ইংরাজগণ । | কিরূপে চলেন, কিরূপে কথা বাৰ্ত্তাকহেন, কিরূপ গৰ্ব্বিতভাবে গুরুত্ব ও গ্রন্থ ভাব প্রতি পদে প্রকাশিত করেন, উত্তম অভি. নেতা যখন ইংরাজচরিত্র অভিনয় করিতে যাইবেন, তখন তিনি সে সমস্ত অমুকৰুণ না করিয়া কখন ইংরাজ সাজি বেন না। প্রণয়ান্ধ প্রণয়ীর চরিত্র যিনি অভিনয় করিতে যাইবেন, সেই প্রণয়ী মহাবীরপুরুAহইলেও সুস্নিগ্ধ ও মোহ করী প্রণয়দ্বারা সেই বীর পুরুষ ও কেমন কামিনীমন-বিমুগ্ধকর মুকুমার ভাবে বিনত ও বিচলিত হইয়া থাকেন এবং সেই ভাবে বিচলিত হইয়া তিনি কেমন স্ত্রৈণতার বিশেষ ভাব ভঙ্গি দেখাইতে থাকেন, অভিনেতা তাহা উত্তমরূপে প্রদর্শন করেন। একজন ইংরাজচরিত্র অভিনয় করিল, অন্যজন প্রণয়রূপ হৃদয়ভাবের অভিনয় প্রদর্শন করিল বটে, কিন্তু; ইহাৱা দুই জনেই কতকগুলি বিশেষ । বিশেষ দ্রষ্টব্য গুণ ও দোষ দেখাইয়া ইংরাজ ও প্রণয়ীর ভাব দর্শকগণের মনে, উদিত করিয়া দিল । -- প্রতি হৃদয়ভাব বাহ্যজগতে যে সমস্ত বিশেষ লক্ষণ, অঙ্গভঙ্গি ও কণ্ঠধ্বনিতে পরিব্যক্ত হয় সেই সমুদায় তাহার পরিउांश । झलग्नांडाख्रद्र ¢श कांर्याप्लेि श्ब्र, भूथl বয়বে, বাক্যধ্বনিতে এবং সৰ্ব্বাঙ্গের ভঙ্গি ক্রমে তাহা পুকাশিত হইয় পড়ে। বলা টের প্রতি রেখার সহিত এবং মন্ত্রব্যের প্রতি কণ্ঠস্বরের সহিত হৃদয়ের যে ঘনিষ্ট সম্বন্ধ তাহার পর্যালোচনা করা প্রতি অভিনেতার কৰ্ত্তব্য। হৃদয়বীণার একতন্ত্রে আঘাত কর সমুদায় শরীরে তাহ ধুনিত