প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৪৩৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8২০ অাৰ্য্যদর্শন । r


পৌষ ১২৮২। সন্তান বহুকালের পর তাহার জননীকে দাসত্ব দুর্দশায় নিৰ্ব্বাসিত কোন ঘোর স্থানে পরিত্যক্ত দেখিতে পাইলে যেমন অধীর উন্মত্ত হইয়া উঠে, তাহার চির নির্বাপিত অন্তর অনল একেবারে অগ্নিগিরির উচ্ছাস ধারণ করে ; যদি কেহ তখন তাহাকে বলে কল্পনা মূৰ্ত্তি দেখিতেছ, তাঙ্গতে ক্ষতি নাই, সে সেই মূৰ্ত্তি আর শীর্ঘ ভুলিতে পারে না, তাহার দর্শন, সম্ভাষণ ও আলিঙ্গন অন্তকরণকে উদ্ভূত উন্মাদ ও করিয়া ফেলে। উত্তেজনা ও বিভ্রম উভয়েরি উদ্দেশ্য এক, কেবল প্রকৃতি স্বতন্ত্র । উভয়ই কাব্যের অঙ্গ। পাশ্চাত্য পণ্ডিতেরা উদ্দীপনাকে কাব্য হইতে পৃথক করিয়া স্বতন্ত্র সংজ্ঞা প্রদান করিয়াছেন, কিন্তু ভারতবর্ষীয় পণ্ডিতেরা তাহার বিশেষ কারণ কোন দেখিতে পান নাই। উভয়ই কাব্যের উদ্দেশ্য সাধনে ছুইটি অঙ্গু মাত্র । খণ্ড কাব্যে অনুচরিত্র সকলের সহিত মূল চরিত্রের এই রূপ প্রকৃতির কার্য্য সকল চলিয়া উপাখ্যান অন্ত সীমায় উত্তীর্ণ হয়। এই অস্তে গিয়া আপূৰ্ব্ব আখ্যানের রস বিচার হইয়া থাকে। যদি উপাখ্যান অন্তকালীন মন্তকরণকে প্রফুল্ল, প্রসারিত, ও উন্নত করিয়া কোন উজ্জল ব্যাপ্ত ক্ষেত্র দেখাইয়া পরিসমাপ্ত হয়, তবে তাহাকে মুখাস্ত আখ্যান (Comedy) সংজ্ঞা দেওয়া যায়। আর যদি উহা অন্তরকে গভীর,ভার, অবনত, স্তম্ভিত, বিহবল করে এবং অনন্ত ঘোর অন্ধকারের ক্ষেত্রদেখাইয়া পরিসমাপ্ত হয়, তবে তাহাকে দুঃখাস্ত (Tragedy) সংজ্ঞা দেওয়া যায় । * আমরা অপর প্রস্তাবে আখ্যানের এই দুই বিষয়ের | আলোচনা করিব । শ্রীরামচন্দ্র মুখোপাধ্যায়। • মুখাস্ত ও দুখান্ত এই দুইটি নামও প্রকৃতি পরিশুদ্ধ হইল না । সোহাগ। Fair the sace of orient day, Fair the tints of opennig rose: But fairer still my Delia dawns. More lovely far her beauty shows. (b) মনোহর প্রভাতের বিকচ বদন । যবে ফুলময়ী উষ। পূরব অম্বরে, বয়ষি কাঞ্চন বারি দেয় দরশন, • লাবণ্য তরঙ্গে ভালি কোমল মন্থরে। Burns' (२) মনোহর গোলাপের তরল মাধুরী ! ! খোলে যবে বন-বালা দল মুকোমল, উছলি কোমল কোলে অমৃত লহরী, মোহিয়া অখিল বন, রূপে অবিরল।