প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৪৪৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আর্য্যদর্শন । কোন যুক্তি প্রদর্শন না করিয়া তাহাকে একটা মোটা কথা বলি “যদি ধৰ্ম্মনীতি লোকের মন হইতে তিরোহিত হয় তাহা হইলে সমাজ কত দিন চলিতে পারে ??” চন্দ্র বাবু ২১ জন দার্শনিকের জীবন চরিত প্রদর্শন করিয়া বলিবেন, তাহীদের দ্বারা সমাজের কোন অনিষ্ট হয় নাই, কিন্তু সকল লোকোরাইত ল্যাপ্লাস অথবা সেলীর ন্যায় পণ্ডিত ও আত্মাভিমানী

  • সমালোচক এখানে নধৰ্ম্মনীতি স শব্দ নীতি (Morality) অর্থে প্রযুক্ত করিয়াছেন। লোকের মন হইতে নীতির ভাব তিরোহিত হইলে, সমাজের বিশৃঙ্খলা ঘটে বটে ; কিন্তু ধৰ্ম্মের (Religion ) ভাব তিরোহিত হইলে, সমাজশৃঙ্খলার কোন বিঘু ঘটিবার সম্ভাবনা নাই। ধৰ্ম্ম পরলোক সম্বন্ধে, নীতি ইহলোকের জন্য। সুতরাং ধৰ্ম্মের অন্তর্ধানে ইহলোকের

কোন অনিষ্ট হইবার সম্ভাবনা নাই। সুতরাং চন্দ্রশেখর বাবুর প্রতি সমালোচক যে অভিযোগ করিয়াছেন, তাহা নিতান্ত অন্যায় হইয়াছে। স। ===س* নহেন, যে ধৰ্ম্মভয় ব্যতীতও পাপ হইতে বিরত থাকিবে ।+ - উপসংহার কালে আমরা চন্দ্র বাবুকে उँडाख् প্রেমের ন্যায় আর ২১ খানি উৎকৃষ্ট গ্রন্থ লিখিয়া বঙ্গ ভাষার উন্নতি সাধন করিতে অনুরোধ করি ।

  • শ্ৰীশ্ৰীকৃষ্ণ দাস । কোন কাবের করণে বা অকরণে ঈশ্বর আমাদিগের প্রতি প্রীত বা কুপিত হইবেন,এইরূপ পারলৌকিক আশা বা ভয় প্রদর্শন না করিয়া যদি লোকদিগের যুক্তি শক্তি ও কর্তব্য বুদ্ধির পরিমার্জন করা যায়, তাহা হইলেই লোকে কৰ্ত্তব্যে নিরত ও অকৰ্ত্তব্যে বিরত হইতে পারে । কোনটি ভাল এবং কোনটা মন্দ কাৰ্য্য এ বিষয়ে মতভেদ হইতে পারে ; কিন্তু যেটা ভাল সেটা অবশ্য কৰ্ত্তব্য এবং যেটী মন্দ সেটা অবশ্য পরিবজ্জনীয়— এ বিষয়ে নিরীশ্বর দেশেও কোন মতভেদ নাই । সুতরাং ধৰ্ম্ম ভয় ব্যতীত লোকে কৰ্ত্তব্যের অনুসরণ করিবে না

সমালোচকের এরূপ আশঙ্কা সম্পূর্ণ অমূলক। 게 | প্রাপ্ত গ্রন্থের সংক্ষিপ্ত সমালোচন। পতি বশীকরণ মঞ্জ—শ্ৰীব্রজসুন্দর রায় প্রণীত । চাট মহর জ্ঞান বিকা:িী যন্ত্রে মুদ্রিত। j সত্যভামার প্রতি পতি বশীকরণ সম্বন্ধে দ্ৰৌপদীর উপদেশ ছলে এই গ্রন্থ লিখিত হইয়াছে। | অদ্যাবধি অন্মদেশীয় অনেক স্ত্রীলোক মন্ত্র তন্ত্র দ্বারা স্বামীকে বশীভূত করিতে চেষ্টা করেন। তাহার অলীকতা প্রদর্শন == পূৰ্ব্বক সচ্চরিত্রতা ও বিনয় যে স্ত্রীদিগের পতি বশীকরণের এক মাত্র উপায় ব্রজ মুন্দর বাবু তাহা সুন্দর রূপে বর্ণন গ্ৰন্থ খানি প্রকৃত কার্য নহে। গ্রন্থকারের তাহ উদ্দেশ্য ও নহে। এখানি যার পর নাই সরল ভাষায় বিরচিত, সুতরাং নীরক্ষর স্ত্রীলোকদিগের সহজেই বোধগম্য হইতে পারে। করিয়াছেন।