প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৪৯০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SAASAASAASAAAS মাঘ ১২৮২ | শরীরও তদ্রুপ প্রকৃতিস্থ থাকিলে তাহা জীবিত থাকে। কতক গুলি নিয়ম প্রতিপালিত হইলে উদ্ভিদ ও প্রাণী শরীর জীবিত থাকে। এই নিয়ম গুলির যে প্রকার ব্যতিক্রম ঘটে, সেই পরিমাণে উদ্ভিদ ও শরীর প্রকৃতিস্থ থাকে। অত এব জীবন ও প্রাণ, উদ্ভিদ এবং শরীরের । বিশেষ প্রকার অবস্থার নাম মাত্র। জীবন ও প্রাণ বলিলে কোন বিভিন্ন পদার্থ বুঝায় না। যখন আমরা বলি বৃক্ষের জীবন আছে, অমুক প্রাণীর জীবন আছে তখন তাহাদিগকে আমরা মৃত অবস্থা হইতে পৃথক করি মাত্র। চেতনার নিয়ম এই যতক্ষণ প্রাণ থাকে ততক্ষণ চেতনা থাকে | জীবিত থাকিয়া ও যে কখন কখন অচেতন হই তুহি চেতনারই নিয়ম-সঙ্গত। তখন একেবারে চেতনা বিরহিতৃ হই না, তাহা স্থগিত থাকে মাত্র। চেতনার নিয়মই এই। যেমন জড় পদার্থের বিশেষ বিশেষ নিয়ম আছে চেতনার ও অনেক গুলি বিশেষ বিশেষ নিয়ম আছে। চেতনার ক্ষণিক অপসরণ এই বিশেষ নিয়মাধীন। মৃত অবস্থায় কেবল আমরা একেবারে চেতনা বিরহিত হই। কারণ সে অবস্থায় শরীরের চেতনা কখনই দৃষ্ট হয় নাই। এই প্রত্যক্ষ প্রমাণ । - দি বল জড়পদার্থ হইতে যেমনঃপদার্থের উৎপত্তি হয়,ইহার দৃষ্টাস্ত কুত্রাপি "পরিদৃষ্ট হয় না। ইহার প্রত্যুত্তরে আমরা শরীর ও মন । 8१७ বলি, জড়পদার্থ যে স্থলে শারীর পদার্থ | রূপে পরিণত দেখা যায়, সেই স্থলেই মনঃ-পদার্থের উৎপত্তি। সামান্য জড়পদার্থের সমাবেশ অথবা সম্মিলনে মন-পদার্থের উৎপত্তি অসম্ভব। তুমি যদি জড়পদার্থ হইতে শরীর নিৰ্ম্মাণ করিয়া দিতে পার, আমরা ও সেই শরীর মধ্যে প্রাণ ও চেতনপদার্থ দেখাইতে পারি। প্রকৃতির নিয়মৃ এই। যেখানে উৎপত্তির নিয়ম ঠিক থাকে, সেখানে ফলের নিয়মও ঠিক হইবে। জড়পদার্থ হইতে জড়পদার্থের উৎপত্তি যেমন সচরাচর দৃষ্ট হইতেছে, প্রাণি শরীরে তেমনি চেতনার উৎপত্তি সৰ্ব্বক্ষণেই প্রতীয়মান হইতেছে। এখন কথা এই, কীটামু হইতে বৃহৎকায় হস্তী পর্য্যন্ত প্রাণীগণ যেমন শ্রেণীবদ্ধ আছে, তেমনি তাহাদিগের চেতনাসংস্কারের নানাবিধ বিভিন্নতা দৃষ্ট হয় কেন ? আবার করার যে পশুসংস্কার তাহা মানবজাতির মন হইতে এত প্রভিন্ন কেন ? ইহার সদুত্তর মহাত্মা ডারউইন সাহেব প্রদান করিয়াছেন। মানবীয় . শরীর ও মস্তিষ্ক যেরূপে সংগঠিত এরূপ কোন প্রাণীর মস্তিষ্কই স্বঠ নহে। অন্য কোন প্রাণীর মস্তিষ্ক ও শারীর কৌশল যদি মানব সদৃশ হইত, তাহা হইলে সেই প্রাণী যে মনোবিশিষ্ট হইত, অনায়াসে এরূপ অনুমান করা যাইতে পারে। বাপীয় যন্ত্র দ্বারা যে বাপ উৎপন্ন হয় ও আবদ্ধ থাকে, সেই বাম্পের - = - -كسفيك =