প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৪৯৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. ফাল্গুণ ১২৮২। জন ষ্টয়ার্ট মিলের জীবনবৃত্ত। 89 న འ་རྒྱ་ আমরা এক্ষণে মিলের জীবন-নাটকের শেষ অঙ্কে উপনীত হইলাম। বীণাপাণি এত দিন তদীয় লেখনীতেই কেবল বিরাজ করিতেছিলেন, রসনায় বিকাশ পাইবার কোন সুবিধা পান নাই। এক্ষণে শেষ দশায় সেই সুবিধা ঘটিল। ১৮৬৫ খৃষ্টাব্দের গ্রীষ্মকালে মিলুকে হাউস অব কমনসের সভ্য মনোনীত করার প্রস্তাব श्श । মিলকে পালেমেন্টের মেম্বর করিবার •নিমিত্ত যে এই সৰ্ব্ব প্রথম প্রস্তাব হয় এরূপ নহে। দশ বৎসর পূৰ্ব্বে তিনি যখন আবুলণ্ডের ভূমি বিষয়ক জটিল প্রশ্নের মীমাংসা করেন, তখন মিষ্টার লুকাস এবং মিষ্টার ডফি প্রভৃতি আয়ন ণ্ডের সাধারণ দলের অধিনায়কেরা তাহা| কে আয়লণ্ডের সাধারণ দলের প্রতিনিধি করিয়া হাউস অব কমনসে পাঠা | ইবার প্রস্তাব করেন। কিন্তু তৎকালে | মিল, ইণ্ডিয়া হাউসে নিযুক্ত ছিলেন, | সুতরাং সেই প্রস্তাবে সন্মত হইতে | পারেন নাই। ইণ্ডিয়া হাউসের কৰ্ম্ম ! পরিত্যাগের পর মিলের বন্ধু বান্ধবের বর্তী হইবে আপাততঃ তাহার কোন সম্ভাবনা ছিল না। অনেকে মিলের মনে &》 জন্ম ষ্টয়ার্ট মিলের জীবনবৃত্ত। পালেমেণ্টীয় জীবন। এরূপ প্রতীতি জন্মাইয়া দিবার চেষ্টা করিয়াছিলেন যে, কোন ইলেক্টরান্থ সমাজই তাহার নায় কেন্দ্র-বহির্ভূতমতাবলম্বী ব্যক্তিকে পালেমেন্টের সভ্য মনোনীত করিতে চাহিবেন না। বিশেষতঃ র্যাহার কোন স্থানীয় সংস্রব বা লোকপ্রিয়তা নাই, এবং যিনি মত বিষয়ে কোন দলের প্রতিনিধি হইতে চাহেন না, বিপুল অর্থ ব্যয় ব্যতীত তাদৃশ লোকের পালেমেণ্টের সভ্য মনোনীত হওয়ার সম্ভাবনা অল্প । কিন্তু মিলের দৃঢ় প্রতীতি জন্সিয়াছিল যে যাহারা সাধারণ কার্ঘ্যে ব্রতী হইবেন, তাহাদিগের সেই উদ্দেশে এক পয়সাও ব্যয় করা উচিত নহে। তাহার মতে পালেমেণ্টে সভ্য মনোনীত করিবার জন্য যে সকল ব্যয় যুক্তিসঙ্গত ও অপরি হাৰ্য, রাজকোষ বা স্থানীয় চাদ দ্বারাই সেই সকল সাধারণ ব্যয়ের নির্বাহ হওয়া উচিত। যদি কোন ইলেক্টরাল সমাজ | কোন ব্যক্তি-বিশেষকে পালেমেন্টে আপনাদিগের প্রতিনিধি স্বরূপ প্রেরণ कबिड हेझ करहन थदः नई ३शत्र সফলতা সাধনের নিমিত্ত র্তাহারা शतःि তাছাকে পালেমেণ্টে আসীন দেখিতে ' हेक्ल করেন। কিন্তু সে ইচ্ছা যে, ফল দিগকে ইলেক্টরের সমাজ কহে। f Electoral Body.-ইংলণ্ডে র্যাহার পালেমেণ্টে নির্দিষ্ট-সংখ্যক সভ্য প্রেরণ করার অধিকার প্রাপ্ত হইয়াছেন, তাছা

==

==