প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8忘》文 আর্য্যদর্শন। " ফাঙ্কণ ১২৮২ ৷ তিকর। যাহাহউক তঁাহাদিগের চেষ্টায় একটী বিশেষ উপকার হইল। নিম্নলিখিত কয়েকটী কারণে ইংলণ্ডের চরিত্র কিয়ং পরিমাণে সংরক্ষিত হইল। সকলে জানিতে পারিল যে ইংলঞ্চে অন্ততঃ জন কতক মনীষী আছেন, যাহারা-যাহাতে উৎপীড়িতদিগের প্রতি সদ্বিচার হয়—তজ্জন্য কোন উপায়ই অনবলম্বিত রাথিবেন না। (২) ইংলঞ্জের সৰ্ব্বোচ্চ ফৌজদারী আদালত স্বাধীনতার স্বীপক্ষ্যে এক অবিসম্বাদিত মত প্রচার করিলেন । (৩) রাজকৰ্ম্মচারিদিগকে সাবধান করা হইল যে র্তাহারা যেন অতঃপর এরূপ নৃশংস কার্য্যে প্রবৃত্ত না হন ; তাহারা ফৌজদারী আদালতের দণ্ডের হস্ত হইতে মুক্ত হইতে পারেন ; কিন্তু তজ্জন্য তাহাদিগন্ধে যে ব্যয় ও যন্ত্রণা সহ্য করিতে হইবে তাহ নিতান্ত সামান্য হইবে না। : যৎকালে জামেকা বিষয়ে এইরূপ আন্দোলন চলিতেছিল, তৎকালে মিল, নানা স্থান হইতে নানা প্রকার বেনামী চিঠিপ্রাপ্ত হন। ইংলণ্ডের নৃশংস অধিবাসি . দিগের মধ্যে অনেকেই যে নৃশংসহৃদয় এবং তাহাদিগের অনেকেরই যে জামেকার হত্যাকাণ্ডের সহিত সম্পূর্ণ সহানুভূতি ছিল এই পত্রগুলি তাহার নিদর্শন। এই পত্র গুলিতে মিলের প্রতি নানা প্রকার রহস্য বিক্রপ ও কটুক্তি পর্যন্ত ও প্রযুক্ত, এবং গুপ্তহত্যুর ভর পর্য্যন্ত ও প্রদশিত হইয়াছিল। ক্রমশ: 1 । ーで〜csエーXユづ〜一ー - কবিত্বও কাব্য সমালোচনা | পঞ্চম, প্রস্তাব । 4. মুখাস্ত আখ্যান, দুঃখাস্ত আখ্যানের ঠিক বিপরীত-লক্ষণাক্রান্ত ; উহা অস্তঃকরণকে ক্রমে বিকশিত, বিস্তৃত ও উন্নত করিতে করিতে একটি প্রশস্ত সুখ-ক্ষেত্র দেখাইয়া পরিসমাপ্ত হয়। আমরা দুঃখাস্ত উপা খ্যানের প্রকৃতির বিষয় আলোচনার সময় মুখাস্ত উপাখ্যানের প্রকৃতিও এক রূপ দেখাইয়াছি। উপাখ্যানের শেষ ঘটনাটি কেবল মিলন, সৌভাগ্য ইত্যাদি কোন মুখজনক ঘটনায় পৰ্য্যবসিত হইলেই উহা সুথান্ত সংজ্ঞা পাষ্টতে পারে না। সুথাপ্ত ও দু:খান্ত অর্থে, উপাখ্যানের } শেষ ঘটনাটিতেই যে কেবল মুখ বা দুঃখ জনক অবস্থা প্রাপ্ত হইবে, তাহ নয় ; আপূৰ্ব্ব উপাখ্যানের মুখ, দুঃখ উভয় রসের যেটা প্রবল হইয়া, একটিকে অতিক্রম করিয়া অপরটি তাহার অন্তে গিয়া দাড়ায়, উপাখ্যানকে আমরা সেই রসাত্মক সংজ্ঞা দিয়া থাকি। মুখাস্ত দুঃখাস্তু অর্থে সুখ দুঃখ ঘটনান্ত বুঝিতে হইবে ন, মুখ-রসান্ত দুঃখ-রসাস্ত বুঝা উচিত।" | একটি রসকে প্রবল করিতে হইলে, | SAAAAAA SSAAAASSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSSMMSSSS