প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


○ ob" আর্য্যদর্শন { ফাঙ্কণ ১২৮২ ৷ তাহার সংজ্ঞা লাভ করিতে পারি না । আবার মনে কর শিরা সকল আপন কার্য্যে সক্ষম আছে, কিন্তু সংজ্ঞা লাভ করিবার জন্য মস্তিষ্কের অবস্থানান্তরিত হইতে যে সময় আবশ্যক করে তাহার শেষ হইতে না হইতে আঘাত হেতু মস্তিষ্কের সে ক্ষমতা নষ্ট হইয়াছে, মস্তিষ্ক আর ইচ্ছায় রূপ রূপান্তর হইতে পারে না । এরূপ স্থলে যদিও সে আঘাত হইতে আমাদের মৃত্যু হইতে পারে, তথাপি মৃত্যুকালীন আমাদের কোন অনুভূতিই হয় না। এরূপ স্থলে অজ্ঞাতভাবে জীবনের শেষ হয়। এরূপ মৃত্যু হঠাৎ জীবনের অভাব (Negation of life) fed of: কিছুই না। এইরূপ শেষোক্ত মৃত্যুঅনেক প্রকারে ঘটিয়া থাকে। বন্দুকের গুলি মস্তিষ্কের ভিতর দিয়া চলিয়া গেলে এই রূপ হয়। মস্তক ভেদ কুরিয়া গুলি যাইতে এক সেকেণ্ডের সহস্র ভাগের এক ভাগ লাগে। এই সময়ের মধ্যে মস্তিষ্ক । সংজ্ঞালাভোপযোগী অবস্থানে পরিণত হইতে পারে না। কারণ পূৰ্ব্বেই বলা হইয়াছে যে মস্তিষ্কের এই কার্য্যে একদশম সেকেণ্ডু লাগে । সুতরাং গুলি দ্বারা আহত ব্যক্তি কিছুই অনুভব করে না। এবং মৃত্যুর পর এরূপ ব্যক্তির মুখের প্রশান্ত ভাব এই সিদ্ধান্তের প্রমাণ পক্ষে সাক্ষ্য দিয়া থাকে । সময়ে সময়ে এরূপ ঘটনা হইয়া থাকে যে গুলির আঘাতে মৃত্যু হয় না, কিছুকাল অচৈতন্য থাকিয়। পরে সংজ্ঞা প্রাপ্ত হয়। এই সকল ব্যক্তিদিগের নিকট জানা গিয়াছে যে অচৈতন্য হইবার পূৰ্ব্বে তাহা দের কোন অনুভূতিষ্ট হয় নাই। বন্দুকের গুলি অপেক্ষাও অধিক দ্রুতক্রিয়া অনেক আছে। বিদ্যুতের ক্রিয়া ইহার ক্ষুন্যতম। বিন্ধুত্যের প্রস্তাবে উক্ত হইয়াছে বিদ্যুৎ অতি ক্ষণস্থায়ী । ইহার গতিও অত্যন্ত দ্রুত। এমন কি এক সেকেণ্ডের মধ্যে চন্দ্রলোক হইতে আমাদের পৃথিবীতে আসিতে পারে। এবং এক সেকেণ্ডের দশ হাজার ভাগের এক ভাগ ইহার স্থায়িত্ব। অনেকে বলিতে পারেন আমরা স্পষ্ট দেখিতে পাই যে বিদ্যুৎ ইহা আপেক্ষা অধিক ক্ষণ থাকে। বাস্তবিক ও ইহা অধিক ক্ষণ থাকে । তাহার কারণ আলোকের সন্থা বিলুপ্ত হওয়ার পরও এক ষষ্ঠসেকেণ্ড তাহার ভাব ' চক্ষু-পুত্তলীতে রক্ষিত হয় । ইহার প্রমাণ আমরা সৰ্ব্বদাই দেখিতে পাই । অন্ধকার রাত্রিতে অনেকেই হাউই উঠিতে দেখিয়াছেন। হাউই যে পথ দিয়া উঠে বা যে পথ দিয়া নামে,সেই পথ একটী উজ্জল রেথ বলিয়া বোধ হয় কেন ? সমস্ত পথেইত প্রজ্জ্বলিত অগ্নি থাকে না। হাউই যেমন বেগে চলিয়া যায় অগ্নিময় ভাগও সেই | সঙ্গে যায়। তবে সমস্ত পথ অগ্নিময় | দেখাইবার কারণ কি ? চক্ষু-পুত্তলীতে,k আলোক ভাবের সংরক্ষণই ইহার কারণ। ক্ষণপূৰ্ব্বে হাউই যেখানে ছিল সেখানে এক্ষণে অগ্নি নাই বটে, কিন্তু ক্ষণ পূৰ্ব্বে আমাদের পক্ষে , ==