প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫৩৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আর্য্যদর্শন। . - कांग्ल**२४२ ।। | এক একটা কালী, এক একটা জোয়ান, অব আর্ক, এক একটা ঐলবিলা, ও এক একটা ম্যাডেম রোলাগু চাই। প্রণয়! প্রণয় ! আমাদের নাটককারেরা, আমাদের কবিরা, আমাদের আখ্যায়িকা-লেখকের প্রণয় ভিন্ন আর কোন বিষয়েই লিপিতে জানেন না। বাঙ্গাझैौद्ध झनब्र-श्लूिद झनग्न-७१ट्ञ फूत्र ডুব। ইতাকে আর প্রণয়পয়োধিতে অধিকতর নিমজ্জিত করিতে হইবে না। যথেষ্ট হইয়াছে ! এক্ষণে আমরা শৌর্য্য চাই, বীর্য চাই, একতা চাই। অধঃপতন সঙ্গীতদ্বারা তাহার শিক্ষা কষ্টতে পারে না। আমরা আর ভাবতবিজয়, বঙ্গবিজয় কাব্য পড়িতে চাঠিন। তাছার পরিবর্তে এক্ষণে আমরা সিংহলবিজয়, পারস্যবিজয়, যবনবিজয় প্রভৃতি কাব্য পড়িতে ইচ্ছা করি। আমাদিগের গ্রন্থ কারগণের হৃদয় এখন এষ্ট দিকে চালিত इच्न ইহাই আমাদিগের ঐকান্তিক বাসনা। পাপের প্রতিফল-নাটক – শ্ৰীকেদার নাথ ঘোষ বি, এল প্রণীত। নূতন স্কুল বুক প্রেসে মুদ্রিত। মূল্য ॥• আনা মাত্র। বিমলা ও তদীয় ভগিনী বংশীধর মল্পিক নামক বৰ্দ্ধমানের জনৈক ধনাঢ্য বণিকের সহিত অলৌলিক ও লৌকিক বিবাহ স্বত্রে সম্বদ্ধ হন। সাধারণ ভাষায় |–विश्न বংশীধরের প্রণয়িণী ও তৎসহোদর বংশীধরের স্ত্রী ছিলেন। বিমলার গর্ভে বংশীধরের মতিলাল, হীরালাল, | চনিলাল ও কানাইলাল নামক চারি পুত্র জন্মে। এবং তদীয় ভগিনীর গর্ভে এক স্বামীর ঔরসে যাদবচন্দ্র ও ভাবিনী নামক ভাই ও ভগিনী জন্মে। বংশীধর खङ्’ সম্পত্তির অধিকারী। র্তাহার বিষয়ের বার্ষিক আয় ৬ লক্ষ টাকা। র্তাহার নিজের হস্তে নগদ সাৰ্দ্ধ তিন লক্ষ টাকা ছিল । डि*ि*निरञ्जब विरुग्न कडेटङ खांद्र ऊ६. লক্ষ টাকা লষ্টয়া চারি লক্ষ করিয়া বিম লার গর্ভজাত চারিপুত্রকে সমভাগে দিয়া অবশিষ্ট সমস্ত বিষয় যাদবচন্দ্রকে দিয়া যাইবেন সঙ্কল্প করিয়াছিলেন। যাদব চন্দ্রের উপর বিষয়ের সমস্ত ভার ছিল, সুতরাং বংশীধর বিষয় হষ্টতে s• शछात्र का नटॆशति चना शानि বের অনুমতি চাছিলেন। ছবি গীত যাদব | পিতার যথেষ্ট অবমাননা করিলেন এবং কিছুতেই পিতার প্রস্তাবে সম্মত হইলেন । না । বংশীধর প্রতিজ্ঞা করিলেন যে যদি যাদব র্তাহার প্রস্তাবে সম্মত না হন, তাহা ইষ্টলে তিনি সমস্ত বিষয় বিমলার পুত্র-চতুষ্টয়কে প্রদান করিয়া যাইবেন। বিষয় তাহার স্বোপার্জিত সুতরাং তাহার ইচ্ছার কে গতি রোধ করে ?-যাদব উদ্ধত-স্বভাব, তিনি পিতার প্রস্তাবেও সম্মত হইবেন না, এবং প্রাণ থাকিতে ছিন্নয়ও হস্তান্তরিত হইতে দিবেন না। অব শেষে তিনি বয়স্য কমলের পরামর্শে পিতার প্রাণবধে কৃতসঙ্কম্প হইলেন। যে দিবস বংশীধর যাদবের সহিত বিবাদ করিয়া" রজনীতে মেল ট্রেন যোগে বাট যাইতে ছিলেন, সেই দিবসই ষ্টেসন হইতে বাটী |