প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫৫৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ی= | ૯૭ના আর্য্যদশন । و سیسی سیسی سیس= চৈত্র ১২৮২ । षष्ठ नेिन भक्षूषा-डष्ठ नेिन ननिश्ठा সংসারে ইষ্টয়া আদিতেছে। পুরুষ-হত্যা, স্ত্রী হত্যা, শিশু-হতা ততদিন । যতদিন মনুষ্য, মনুষ্যের ক্রোধ লোভ প্রভৃতি রিপু সকল ও ততদিন । রিপু সকল দমন করা সহজ নতে। শিক্ষা বলে অভ্যাসের গুণে মানব রিপু দমন করিতে পারেন, কিন্তু সে অভ্যাস, সে শিক্ষা সমাজের সকলের সম্ভবে না । আপনাদের ক্রোধ লোভাদি রিপু আপনারা দমন করিতে না পারে, তাহাদিগকে সাবধানে রাখিবার জন্য নানা প্রকার রাজনিয়ম, সমাজ নিয়ম। দণ্ডবিধির গুরু তর ধারা সকল তাহাদিগের জন্য। সমাজে অপরাধ দুই প্রকার, স্বাভাবিক ও অস্বাভাবিক | রিপু সকলের উত্তেজনায় মানব যে অপরাধ যে দুষ্কৰ্ম্ম অপরাধ বলিলাম -ক্ৰোধ লোভাদি রিপুর উত্তেজনায় নরহত্যা করা এই o ও তদীয় গ্রন্থাবলী পাঠ করা উচিত। প্রতিষ্ঠাপিত হয়, তাহা হইলে সেই দেৱ । আমাদিগের বিশ্বাস, যদি কখন মানব- | তালিকা হইতে কমত ও মিলের নাম জাতির উপকৰ্ত্তাদিগের পূজা জগতে । কখনই পরিত্যক্ত হইবে না। ভ্রাণহত্যা, শিশুহত্য নিবারণের উপায় কি ? পরিত্যক্ত শিশুদিগকে কে রক্ষা করিবে ? যে সকল ব্যক্তি করিয়া থাকে তাহাকেই আমরা স্বাভাবিক । স্বাভাবিক অপরাধের অন্তভূক্ত। যে |

  • -*- : ----------

অপরাধ কোন বিপূবিশেষের সাক্ষাৎ উত্তেজনার কৃত না হয়, যে দুষ্কৰ্ম্ম লোকে সহসা করিতে বাধা নহে, যে অপরাধ করিবার কোন বিশেষ গৃঢ় কারণ থাকে, যে অপরাধ করিতে লোকে কতক অংশে | শিক্ষা করিয়া থাকে, তাহ সমাজের চক্ষে তত দোষের বলিয়া নিন্দনীয় নহে। কোথাও বা যে অপরাধ সমাজের চক্ষে প্রশংসনীয় তাহাকে আমরা অস্বাভাবিক অপরাধ বলিলাম। বাঙ্গালীদিগের গঙ্গাসাগরে শিশু-নিক্ষেপ, অসভ্য জাতিদিগের দেবোদেশে নরবলী, ভারতববীয় অসভ্যজাতি বিশেষের বুদ্ধ মাতা পিতাকে ভক্ষণ, রাজপুত ও শিকদিগের কন্যা হত্যা ; পতি বিয়োগে পত্নীকে সহমৃতা করণ এবং অধুনাতন সকল সভ্য দেশীয়দিগের অণ-হতা, বা সদ্যোজাত শিশুর প্রাণ বিনাশ এই সকল অস্বাভাবিক অপরাধের মধ্যে নিবিষ্ট । আর দুই প্রকার হত্যা আছে যাহা রাজনীতির অনুমোদিত —যুদ্ধে যে