প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:আর্য্যদর্শন - দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৫৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


== চৈত্র ১২৮২। ভ্রণহত্য, শিশুমৃত্য নিবারণের উপায় ? 84

= ,

হইলে কি হয়, রোগের মূল নষ্ট না

  • কর না রোগ নিমূল হইবে না -যে | স্নেহময়ী জননী আপনার | শিশুকে, লজ্জা ভয়ে, নিন। ভয়ে, আত্মীয় | পরের উৎপীড়ন ভয়ে বিনষ্ট করিতে সাহস করিল ; প্রাণ অপেক্ষাও প্রিয়তম আত্মজকে নষ্ট করিতে পারিল ; দণ্ডবিধি তাহাকে কি ভয় দেখাষ্টবে? মাতা সন্তানের মঙ্গলের জন্যে আপনার প্রাণ অনায়াসে বিসর্জন করিতে পারেন, সেই মাতা যখন পাষণ্ড সমাজের পাষণ্ডতম নিয়মের

ভয়ে আপনার হৃদয়ের হার, নয়নের তারাকে স্বহস্তে উৎপাটতু করিতে সাহস করিল, তখন দণ্ডবিধি তাহাকে কি ছার জীবনের ভয় দেখাইবে ? এই জন্যেই কঠোরতম দণ্ডবিধিও এ মহাপাপ সমাজ হইতে কখনও তিরোহিত করিতে পারে নাই, কোন কালে পরিবেও না। যাহার কেবল দণ্ডবিধির উপর নির্ভর করিয়া সামাজিক পাপের নিবারণ চেষ্টা করেন, তাহারা অতিনিৰ্ব্বোধ। র্তাহার এক অনিষ্ট নিবারণ করিতে গিয়া সহস. সহস, নূন্তন অনিষ্টের স্বত্রপাত করেন আমর তাহাদিগকে সমাজের কণ্টক বই আর কি বলিতে পারি ?—এদিকে আপাতত: এই কথা গুলি বলিয়াই আমাদিগকে অন্য দিকে যাইতে হইতেছে। আমাদিগকে দেখিতে হইতেছে, শিশুহত্য, " শিশুত্যাগ-ভ্রাণ হত্যা সমাজে কতদিন | इंग्लिश डिहे ८कन कऍन ठेवर्ष थशांश গর্ভজাত । কোন ধর্মের সময় এই মহাপাপর বেগ কখন কিরূপ। । ইহা একরূপ স্বতঃসিদ্ধ যে সমাজ | যত সভ্য হইতেছে এই মহা পাপের उऊहै | বেগ বাড়িতেছে-সকল পাপেরই ক্রমে | বেগ বাড়িতেছে।—আমরা নব্য সমাজের বিষয়েই এইকথা বলিলাম, আধুনিক সমাজের বিষয়েই এই কথা বলিলাম। : আমরা দেখিতেছি, ময়ুর সময়ে ভারতে এ পাপের প্রভাব ছিলনা। ময়ূর সময়ে এ মহাপাপ করিবার কাহারও প্রয়োজন । ছিলনা। দরিদ্রতা নিবন্ধন শিশু হত্যাত তখন কোন মতেই হইতে পারিতন । তখন লোকের অভাব ছিলনা বলিলেই হয়। অন্য কারণেও শিশুহত্যা তখন কেন হইবে ? মন্থর সময়ে বিবাহের যেরূপ | ব্যবস্থা ছিল তাহাতে কাহাকেও গুপ্ত , প্রণয় করিতে হইতন। ময়ূর সময়ে য়ে দ্বাদশ প্রকার পুত্র সমাজ মধ্যে পরি গণিত হইত, তাহাতে কাহাকেই জারজ বলিয়া ঘৃণিত হইতে হইতনা, তবে কেন জননী সন্তান হত্যা করিবেন ?—কেনই বা ভ্রণহত্যা করিতে যাইবেন ? মমু যে, বিধি প্রচলিত করিয়াছিলেন, তাহাতে সমাজে, ভ্রুণ হত্যা, শিশু হত্যা কোন মতেই হইতে পারিত না ; সেই কারণেই মনু ভ্রুণহত্যার কোন রূপ শাসন করিয়া যান নাই –ভ্রণহত্য বলিতে আমরা ইচ্ছাপূৰ্ব্বক গর্ভনষ্ট করাকেই মনে করিতেছি। পাঠক গণও তাছাই বুঝিবেন । হইতে চলিয়া আসিতেছে, কোন দেশে | “হত্বা গর্ভমবিজ্ঞাতমেতদেব ব্রতঞ্চরেৎ।