পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/১০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জ্যৈষ্ঠ, ১৩২০ ৷৷ শিববাড়ীর বুদ্ধমূৰ্ত্তি । ܐyܘ মুসলমানের স্তম্ভাদিতে কোন জীবজন্তুর মুক্তি ক্ষোদিত থাকিতে পারে না। কিন্তু খাঁ জাহান আলির কয়েকটি স্তম্ভে মনুষ্যমুক্তি আছে, উহার একটি এক্ষণে সিন্দূর-চর্চিত হইয়া হিন্দুর পূজা পাইতেছে। এ সম্বন্ধে বিস্তৃত আলোচনা করিবার স্থান এ নহে। তবে বহুদিনের আলোচনা-ফলে আমার ধারণা হইয়াছে যে, এই সকল স্থানে প্ৰাচীন কালে কোন কোন বৌদ্ধবিহার বা প্ৰাচীন হিন্দুমন্দির ছিল। বৌদ্ধযুগে, অশোকের রাজত্বকালে যে সকল প্রস্তরে ভারতের নানাস্থানে বিশাল বিহার, চৈত্য, স্তম্ভ বা স্তপ নিৰ্ম্মিত হইয়াছিল, যে ভাস্কাৰ্য্যের ফলে প্ৰস্তরগাত্রে মানুষের চিত্তপ্ৰকৃতি সহজে ফুটিয়া উঠিত, তাহারই আয়াসবিহীন অস্ত্ৰকৌশলে এই সকল স্তম্ভ ও পাদপীঠ নিৰ্ম্মিত হইয়াছিল। বৌদ্ধবিহার বা হিন্দুমন্দিরের প্রস্তর আনিয়া মুসলমান শিল্পী তাহার সাহায্যে গুম্বজ ও মিনার গড়িয়া বঙ্গদেশে মহম্মদীয় স্থাপত্যের নিদর্শন রাখিয়া গিয়াছে। কত বৌদ্ধমূৰ্ত্তি যে মৃত্তিকার নিয়ে, জঙ্গলের মধ্যে পড়িয়া ছিল তাহার ইয়ত্তা করিবার উপায় নাই। পাঠান বা মোগলের হাতে যদি কিছু নিস্তার লাভ করিয়া থাকে, পাশ্চাত্য নীলকরের হস্তে তাহা ধ্বংসপ্ৰাপ্ত হইয়াছে। এক সময়ে যশোহর জিলার নানা স্থানে যে শত শত নীল-কুটী প্ৰস্তুত হইয়াছিল, তাহার অনেক উপকরণ নিকটবৰ্ত্তী ভগ্ন মন্দির বা মসজিদ হইতে গৃহীত হইয়াছিল। যে স্থানে নদীর কুলে নিকটে ভগ্ন, অট্টালিকা ও বিস্তৃত সমুচ্চ প্ৰান্তর ছিল, নীলকরগণ সেই স্থানেই প্ৰবলপ্ৰতাপে গদি পাতিয়া ব্যবসায়ে আত্মসমৰ্পণ করিয়াছিলেন । হিউয়েন সাঙের সেই ৩০টি সংঘারাম কোথায় গেল, তৎসম্বন্ধে চিন্তা করিবার কি কিছুই নাই ? এ সম্বন্ধে আরও একটা কথা আছে। খাঁ জাহান ১৪৫০ খৃষ্টাব্দে বা তাহার KLB DDD DDB DBBD DBDBBSDBB DBDB BBD DDDBDB পুষ্করিণী খনন করাইতেছিলেন, তখন কয়েক হাত মাটীর নিয়ে একখানি প্ৰকাণ্ড কৃষ্ণপ্রস্তরের বৌদ্ধপ্ৰতিমা পায়েন। সম্পূর্ণ প্ৰস্তরখানি পাদপীঠ বাদে ৩২ ফুট দীর্ঘ ও ১ ফুট ৮ ইঞ্চি প্রস্থ। প্ৰতিমার নিয়ে একটি কীলক purpose they at present fulfil. The belonged to some other structure and they were taken from it or from its ruins to form pillars in this mosque" leport on Jessore pp. 16-7. প্রাচীন গ্রীকদিগের মত এদেশে মুসলমানরাও নক্সা স্থির করিয়া শিল্পীকে দিতেন। যাহারা পাতী কাটিত, তাহারা সেই নক্সা দেখিয়া নক্সার মত পাতার কাটিত । সুতরাং কোন একটি গৃহের জন্য নিৰ্ম্মিত স্তম্ভের গঠনাদি একরূপ হইবারই কথা। - সম্পাদক।