পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৩৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eta, y oro বসন্তে। ' ع“ vo8 বসন্তে । ( . ) ভারতবর্ষের উত্তর-পশ্চিম সীমান্তে যে পর্বতশ্রেণী ভারতের বিজয়-লালসা ও শত্রুর আক্রমণ উভয়েরই গতিরোধ করিয়া দণ্ডায়মান, সেই পৰ্বতশ্রেণী কতকগুলি দুৰ্দ্ধৰ্য মুসলমান জাতি কর্তৃক অধূষিত। ইহার সভ্যতার সহিত সম্পর্কশূন্য, শিক্ষা ইহাদিগের চঞ্চল হিংস্রম্বভাব শান্ত করিতে পারে নাই। ইহারা কারণে অকারণে উত্তেজিত হয়-উত্তেজিত হইলে ভবিষ্যৎ চিন্তা না করিয়া ছোরা ও বন্দুক ব্যবহার করে। বন্দুকে ইহারা অব্যর্থলক্ষ্য-কারণ, ইহার সহজে বন্দুক পায় না-প্ৰাণপণ করিয়া ইংরাজ শিবির হইতে চুরি করিয়া বন্দুক সংগ্রহ করে। ইহারা যেরূপ কৌশলে বন্দুক চুরি করে, তাহা শুনিলে । বিস্মিত হইতে হয়। ইহারা ইংরাজের প্রজা-কিন্তু সুযোগ পাইলেই ইংরাজঅধিকারে প্রবেশ করিয়া গ্ৰাম লুণ্ঠন করে। সময় সময় ইহাদিগের শাসনজন্য ইংরাজকে যুদ্ধযাত্রা করিতে হয়। এ যুদ্ধে অসুবিধা সবটাই ইংরাজের। দুরারোহ পর্বতে কামান লইয়া যাওয়া দুঃসাধ্য-সৈন্য-চালনা করাও কষ্টকর। ; শক্ৰ পৰ্বতের উপরে পাথরের অন্তরাল হইতে গুলি বর্ষণ করিয়া বিব্রত করিয়া তুলে। জিতিলে ইংরাজের কোন লাভ নাই; হারিলে শত্রুর সিকি পয়সা। লোকসান নাই। তবে সাধারণতঃ ইংরাজ ইহাদিগের বাজার বন্ধ করিয়া দিলেই ইহারা শান্ত হয়। ইহাদের গতিবিধি লক্ষ্য করিবার জন্য মধ্যে মধ্যে গুমটি আছে। গুমটির প্রহরীরা প্রয়োজন বোধ করিলে থানায় সংবাদ দেয়। থানায় ইংরাজ-কৰ্ম্মচারী সংবাদ অনুসারে কায করেন। সময় সময় ইহাৱা গুমটির প্রহরীদিগকে হত্যা করিতেও কুষ্ঠিত হয় না। নরহত্যা ইহাদের নিকট অতি তুচ্ছ কায । এক দিন রাত্রিকালে একটা গুমটিতে প্রহরীরা চিন্তিত ভাবে কি পরামর্শ করিতেছিল—আর মধ্যে মধ্যে এক এক জন গুমটির দ্বারের বাহিরে যাইয়া চারিদিকে চাহিয়া দেখিতেছিল। তখনও আকাশের এক প্ৰান্তে শীর্ণ চন্দ্ৰ দেখা যাইতেছিল-চন্দ্ৰালোকে পর্বতের বন্ধুর অঙ্গ কোথাও উজ্জ্বল--কোথাও অন্ধকার দেখাইতেছিল। " 唱 অল্প কাল পরে চন্দ্ৰ অস্ত গেল। যে ক্ষীণ আলোক পৰ্ব্বতের দৃশ্য নয়ন- ,