পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (চতুর্থ বর্ষ).pdf/৪৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Vett, Yvoro l সবাজী । 8 o G বেশ বড় হইয়া সমস্ত জমীকে ঢাকিয়া ফেলিলে ঘাস উঠাইবার আর দরকার হয় না । গাছ বেশী “কাপড়া” হইলে গাছের ক্ষতি না হয়, এইরূপ ভাবে ডাল ও পাতা ছাটিয়া গরুকে খাওয়ান যাইতে পারে ; কোন কোন দেশে ইহার শাক খাইবার প্রথাও আছে। রাঙ্গা-আলুর চাষে অধিক জলসেচনের প্রয়োজন হয় না ; বেশী সার প্রয়োগেরও : কোন প্রয়োজন নাই। হাড়ের গুড়া সারের নিমিত্ত ব্যবহার করিলে ফসল ভাল পাওয়া যায় ; গোবর-সারেও মন্দ ফল হয় না-বিঘা প্রতি ৬৭ গাড়ী গোবর দিলেই যথেষ্ট হয়। ছাই সারেও খুব ভাল ফসল হইয়া থাকে এবং এই ছাই প্রয়োগে ব্যয়ও খুব কম পড়ে। যে সকল শিকড় গাছের ডালের গাইট ( node ) হইতে বাহির হইয়া মাটীতে প্ৰবেশ করে, তাহা হইতে ছোট এবং অল্প মূল্যের আলু পাওয়া যায় এবং ফল। এই দাড়ায় যে, প্রধান মূল ( Main root ) হইতে বড় এবং অধিক দামের ফসল পাওয়া যায় না ; সুতরাং গাঁইট হইতে এইরূপ শিকড় যাহাতে বাহির না। হয় তাহার দিকে মনোযোগ দিতে হইবে। সাধারণতঃ মাঘ ফাস্তুন মাসে এই ফসল সংগ্ৰহ করা হয় ; আয় ও ব্যয় ঃ-বিঘা প্ৰতি ২০ ॥২৫২ টাকা খরচ করিয়া ৩৫৷৷৪০ মণ রাঙ্গা-আলু খুবই পাওয়া যাইবার আশা করা যায়। গড়ে ইহার ১॥৩ টাকা মণ ধরিলে ৫২॥০৷৷৬০২ টাকা পাওয়া যায়। সুতরাং খরচ বাদে বিঘাপ্ৰতি লাভ মন্দ থাকে না । রাঙ্গা-আলুর পোকা :-নিয়ে যে পোকার চিত্র দেওয়া হইল ইহা রাঙ্গা-আলুর,অত্যন্ত ক্ষতি করে। ইহার ইংরাজী নাম Sweet Potato Welevil"। আমাদের দেশে ভিন্ন ভিন্ন স্থানে ইহার ভিন্ন ভিন্ন নাম আছে। এই পোকা মাটীর উপরে, উন্মুক্ত আলুর উপর কিম্বা ডাটার উপর ডিম পাড়ে। ৩/৪ দিন পরে ডিম ফুটিয়া ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সাদা পদখুন্য কীড়া বাহির হয় ও ডাটা এবং আলুর ভিতর ফুকর করিয়া প্ৰবেশ করে। কখন কখন এই কীড়াগুলি ডাটার ভিতর দিয়া খাইতে খাইতে মাটির নীচে। আলুর মধ্যে প্ৰবেশ করে। ১৮২০ দিন খাইয়া কীড়া বড় হইলে আলুর ভিতরে পুত্তলি হয় এবং ৫৬ দিন এই অবস্থায় থাকিয়া পতঙ্গ হইয়া বাহির হয় ও পুনরায় ডিম পাড়িতে আরম্ভ করে। আক্রান্ত আলুগুলির ভিতর কাল হইয়া যায়। এবং কোন কোন স্থলে আলু একেবারেই পচিয়া যায়। যে গাছগুলিতে