পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ).pdf/১৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S8 আৰ্য্যাবৰ্ত্ত । ৩য় বর্ষ-২য় সংখ্যা । যে, ভাগলপুর ও পাটনা প্রভৃতি অঞ্চলে এখনও গীতিব্যবসায়ীদল মনসা-মঙ্গলের গান গাহিয়া থাকে। পাটনা স্কুল বিভাগের ইনসূপেক্টর শ্ৰীযুক্ত ভগবতী সহায় এবং ভাগলপুরের সুপ্ৰসিদ্ধ উকিল শ্ৰীযুক্ত বৈদ্যনাথ নারায়ণ সিংহ মহোদয়দ্বয় আমাকে এই সকল গীতি সংগ্ৰহ করিয়া দিতে 'প্ৰতিশ্রুত হইয়াছেন। র্তাহারা এই গীতি বর্তাহাদের দেশের ভাষায় অনেকবার শুনিয়াছেন। উত্তর-পশ্চিম অঞ্চল হইতে যে সকল বেদিয়ার দল এ দেশে আইসে, তাহারা সৰ্প-ক্রীড়ার সময় বেহুলা ও লক্ষ্মীন্দরের নাম উল্লেখ পূর্বক छgा १ाश्ट्रि थicक । সম্ভবতঃ মগধ বা তন্নিকটবৰ্ত্তী কোন রাজধানী হইতে এই উপাখ্যান সর্বত্র বিস্তুত হইয়া পড়িয়াছিল। রাজধানীর আমোদ উৎসব স্বভাবতঃই সৰ্ব্বত্র অনুকৃত হইয়া থাকে। পাল রাজগণের সময়ে সমস্ত আৰ্য্যাবৰ্ত্ত বঙ্গদেশের পদানত ছিল। সম্ভবতঃ তঁহাদেরই রাজত্বকালে এই গান সর্ব SgKB DDB BBDBS DB BDDB BDDLDD BBD BgBD DBDDSBDS D KBD তাহার উল্লেখ করিবার অবকাশাভাব। কিন্তু এই গানের সূচনা যে দেশেই হউক না কেন, বঙ্গদেশে মনসা দেবীর প্রসঙ্গ যেরূপ পূর্ণাঙ্গ প্রকাশ পাইয়াছিল, অন্যত্র তাহা হয় নাই। বিজয়গুপ্ত ১৪৭৮ খিষ্টাব্দে তাহার মনস-মঙ্গল বচিত করেন। তিনি লিখিয়াছেন, কাণ হরি দত্তই বঙ্গীয় মনসা গীতির প্ৰবৰ্ত্তক, এবং তঁহার সময়েই উক্ত হরি দত্তের গীতিগুলি একরূপ লুপ্ত হইয়া গিয়াছিল, তিনি উহার যাহা কিছু শুনিয়াছিলেন তাহার অনেক স্থলেই দুই চরণে মিল ছিল না । এই সকল কথায় মনে হয়, কাণ হরি দত্ত অত্যন্ত প্ৰাচীন কবি ছিলেন । কাণ হরি দত্ত যে এক সময়ে বিশেষ প্ৰসিদ্ধ ছিলেন তাহাতে সন্দেহ নাই। কারণ, পরবর্তী কালে তঁহার পদাঙ্ক অনুসরণ করিয়া পুরুষোত্তম প্রভৃতি কবি কাব্য লিখিয়া গিয়াছেন। এতাদৃশ কবির গীতি লুপ্ত হইতে অনুনি আড়াই শত বৎসর লাগিব।ার কথা। তাহা হইলে বিজয় গুপ্তের ঐ সময়ের পূর্বে অর্থাৎ অনুমান ১২২৮ খষ্টাব্দে কাণা হরি দত্ত তদীয় DBBSDBYB BBDB DDDLS DDtt BB BDE BBDD DDDB gEBDO ময়মনসিংহ বুড় গ্রামে আছেন, সুতরাং তিন পুরুষে এক শতাব্দী গণনা করিয়া আমরা নারায়ণ দেবের জন্মকাল ১২৪৬ খিষ্টাব্দে পাইতেছি। তৎপরে ১৪৮৫ খ. টাব্দে বিজবংশী তদীয় মনসা-মঙ্গল রচনা করেন। এই কবিগণ সকলেই १5टछद्र शूर्कलडी़।