পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ).pdf/৩১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মানব-প্ৰহেলিকা । Հեr S - : סי ( ס ג i^4}}* হইতে ক্রমশঃ বিকাশলাভ মরিলেন। এবার ঐ কাচপাত্রে একটিও আর এক দিকে উহা অতি সূক্ষ্ম, অনুবাক্ষ- : গিয়া ୩୩tହିଁ? সর্বাপেক্ষা সুসভ্য মানব পৰ্য্যন্ত বিকাশ প্ৰাপ্ত হইয়াছে। আমি "* অঙ্গ । কথা ছঙিয়া দিয়া প্ৰাণীর কথারই আলোচনা করিব । এই স্থানে আবার একটা দুরূহ সমস্যা হৰ্ত্তমান। পৃথিবীতে এই জৈব পরমাণুর আবির্ভাব হইল কোথা হইতে ? এই প্ৰহেলিকা লইয়া বহুকাল ধরিয়া বিষম বিতর্ক ও সতর্ক অনুসন্ধান চলিয়া আসিতেছে। কিন্তু এ পর্য্যন্ত ইহার কোনও মীমাংসাই হয় নাই, সাধারণ মানুষের বুদ্ধির দ্বারা যে ইহার কোনও মীমাংসা হইবে এমন আশা করিবারও স্পষ্ট লক্ষণ এখন দেখা দেয় নাই। এই ব্যাপার লইয়া দুইটি দলের আবির্ভাব হইয়াছে। এক দলের Ta ar gift ( Monist ), ENf3 g3s fÇ73 RAN frif ( Dualist ) ! এখন এই দুই দল নাম ভাড়াইয়াছে। পূর্বে প্রথমোক্ত দলের নাম ছিল BETs? ( Materialist ) Afs f Sc:S Mcal: F(sa (Spiritualist) ! জড়বাদীরা জড় পরমাণু ও তাহার শক্তি ভিন্ন আর কিছুরই নিত্যতা স্বীকার BSD DSS B BBB LLSDDBS gg BDBDD KBSYYSYDS K DDDS সমস্তই জড় পরমাণু হইতে সমুদ্ভূত। যাহাকে আমরা চৈতন্য বলি, তাহ। জড়েরই শক্তি-বিশেষ। অনুকুল অবস্থা পাইলে জড়ের সেই শক্তি আত্মপ্রকাশ করে,-অনুকুল অবস্থার বিপৰ্যায় হইলে সেই শক্তি আত্মগোপন করে। জড়ে এই চিচ্ছক্তির বিকাশ ও লয়ই জীবের জন্ম মরণের রহস্য । জড়বাদীরা আত্মার অস্তিত্ব স্বীকার করেন না। দ্বিবাদী বা আত্মবাদীরা জড় ও আত্মা দুইটির স্বতন্ত্র সত্তা স্বীকার করেন। ইহারা বলেন, চৈতন্য আত্মারই শক্তি, উহা জড়ের শক্তি নহে। জড় হইতে চৈতন্যের উদ্ভব হইয়া থাকে-ইহার একেবারেই কোনও প্রমাণ নাই। যখন দেখা যাইতেছে, জীব হইতেই জীবের উৎপত্তি হয়, জীব বিনা জীবের উৎপত্তিই সস্তবে না।--তখন আত্মার স্বতন্ত্র সত্তা স্বীকার না করিলে উপায় নাই। তবে যদি কখনও জড় হইতে স্বতঃই চৈতন্যের বিকাশ হইতেছে ইহা নিঃসন্দিগ্ধভাবে সপ্ৰমাণ হয়, তখন চৈতন্য জড়েরই শক্তি বলিয়া স্বীকার করা যাইবে। নতুবা নহে। জড়বাদিগণ ও নিশ্চেষ্ট নহেন। জীব জড় পদার্থের বিকার বা রাসায়নিক DB BDDS guu BDES Yt SsL EE L S DDDS