পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ).pdf/৪৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩৪ r আৰ্য্যবৰ্ত্ত e (eጃ ቐቑ--›ሻ ኻፎቐ፻፬ ክ আবৃত থাকে ; সূৰ্য্যালোক ও বায়ু তাহদের মধ্যে প্রবেশ করিতে পারে না। সুশৃঙ্খলাবদ্ধ বাগানে প্রবেশ করিলে মনে যে একটা শাস্তির ভাব আইসে, এই সকল বাগানে প্রবেশ করিলে তাহার কিছুই আইসে না, মনে কেমন একটা অস্বাস্থ্যকর বা আতঙ্কের ভােব আইসে। এই সকল বাগানের উপর বৃষ্টিপাত হইলে আলো ও বাতাসের অভাবে উহাদের তলদেশস্থ জল শীঘ্ৰ শুকাইতে পারে না ; ক্রমশঃ স্মৃত্তিকা নরম হইয়া। তদুপরি গবাদি পশুর চলাফেরার জন্য ঐ স্থান বহুসংখ্যক ছোট ছোট গৰ্ত্তে আচ্ছন্ন হইয়া মশক-জনিয়নের পক্ষে যথেষ্ট সাহায্য করিয়া থাকে। বাগানের তলদেশ। ঐ রূপ সোতা থাকায় উহাতে বহুসংখ্যক ছোট ছোট আগাছার জঙ্গল জন্মিয়া পূর্বোক্ত অসুবিধাকে আরও পরিবৰ্দ্ধিত করে। এক একটি বাগানে ঐ রূপ অপৰ্য্যাপ্ত সংখ্যক বৃক্ষ থাকায় উদ্যানস্বামীর যে বিশেষ লাভ হয় তাহা নহে, বরং তঁহার কিছু ক্ষতিই হয়। একটি সুস্থ গাছ যে বহুসংখ্যক অসুস্থ বৃক্ষের অপেক্ষা অধিক ফলদান করিয়া থাকে তদ্বিষয়ে কাহারও সন্দেহ হইতেই পারে না। বৃক্ষের তলদেশ বহুদিন সোঁতা হইয়া থাকায়, সেই জলে বৃক্ষগুলির যে কোনরূপ উপকার হুইবে তাহা তাবা ভুল। কারণ, বড় গাছগুলি নিয়াদেশে শিকড় বিস্তার করিয়া তথা হইতে রস আকর্ষণ করে-জমীর উপরিদেশ হইতে নহে। বরং জমীর উপরিদেশ অধিক জলসিক্ত থাকিলে জমীর নিম্নদেশে সহজে বায়ু প্ৰবেশ করিতে পারে না এবং তািত্ৰন্থ শিকড়গুলি বায়ুর অভাবে অসুস্থ হইয়া পড়ে। বাগানগুলির সম্বন্ধে যে সকল কথা বলা হইল, জঙ্গলগুলির সম্বন্ধেও প্রায় তাহার সকলগুলিই খাটে। সমস্ত জঙ্গল সাফ করিতে না পারিলেও, উহার DDB DBBD i S DDD BDuuB BB BBD BBB DBS S S DDD DDD জঙ্গল সম্বন্ধে আমাদের দেশে বৈজ্ঞানিক ভাবে আরও পৰ্য্যবেক্ষণ হওয়া আবশ্যক। কতকগুলি জঙ্গল আমাদের উপকারী ও অপর কতকগুলি অপকারী হইতে পারে। কোন কোন জঙ্গল কোন কোন জাতীয় পতঙ্গ বা জীবের উপকার বা অপকার করে, তাহার নির্ণয় করিতে হইবে। আমাদের দেশের জঙ্গলকারী উদ্ভিদসমূহের মধ্যে নিম্নলিখিত গুলি প্রধান ঃ-কচু, কালকাসিন্দা, আশশেওড়া, ভাট, গোয়ালে-লতা, ছাগল-বাটিলতা ও কলমী SDD BiBDDD BBSS DBuB iD DBDBDBBD DB D DDBDD সহায়তা করে, তাহা পল্লীগ্রামের লোক মাত্রেই অবগত আছে ; ঐ সকল SDBB DiDD EBDBDD DD BBLBBB BDB BDiDB DDD DBDBDBDBD