পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (তৃতীয় বর্ষ).pdf/৯৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


खार्छ, ४००० । বৌদ্ধ উপাখ্যান \y Kس আপনি কি দোষী ব্যক্তির প্রতি দণ্ডবিধানের অনুমোদন করেন ? স্ত্রী পুত্ৰ পরিবার সম্পত্তি ও দেশরক্ষার্থ যুদ্ধে প্রবৃত্ত হওয়া কি আপনি ন্যায়সঙ্গত বিবেচনা করেন ? নিষ্ঠুর ও অত্যাচারী ব্যক্তিগণ নিরপরাধ ব্যক্তির উপর উৎপীড়ন করিবে এবং দুর্বল ও অসহায় ব্যক্তিগণ প্রাণরক্ষার্থ অত্যাচারীর বশ্যতা স্বীকার করিবে ইহা দৰ্শন করিয়াও অকাতরে সহ করা কি কোনও সবল ব্যক্তির পক্ষে কৰ্ত্তব্য ? ন্যায়সঙ্গত যুদ্ধেও কি কখন প্ৰবৃত্ত হওয়া বিধেয় নহে ?” ভগবান উত্তর করিলেন, “তথাগত বলিয়া থাকেন যে, কেবল দোষী ব্যক্তিই দণ্ডিত হইবে ও নিরপরাধ ব্যক্তি সৰ্ব্বত্ৰ সৰ্ব্বদা সমাদৃত হইবে। কিন্তু তথাপি সর্ব জীবে দয়া প্ৰদৰ্শন করা কীৰ্ত্তব্য। এক্ষণে জিজ্ঞাস্য হইতে পারে যে, এই উভয়বিধ নিয়ম পরস্পরবিরোধী ; কিন্তু বাস্তুবিক তাহা নহে ; কারণ, দোষী ব্যক্তিগণ যে দণ্ড লাভ করিয়া থাকে তাহাদিগের পূর্বকৃত কুকাৰ্য্যই তাহার একমাত্র মুলীভূত কারণ, নতুবা তাহারা অপরাপর ব্যক্তির ন্যায় সমাদর লাভ করিতে পারে।” বুদ্ধদেব আরও বলিতে লাগিলেন, “যে যুদ্ধে কেবলমাত্র রাজ্য বা আধিপত্য বিস্তার করিবার নিমিত্ত ভ্ৰাতৃবর্গের প্রাণবিনাশ করা হয়, তাহা কোনরূপেই ন্যায়সঙ্গত নহে। পক্ষান্তরে দেশমধ্যে শান্তিস্থাপন ও আত্মরক্ষার্থ যুদ্ধে বদ্ধপরিকর হওয়া ন্যায়ানুমোদিত। যে ব্যক্তি যুদ্ধবিগ্রহের কারণ, তিনিই প্ৰকৃত অপরাধী। তথাগত স্বাৰ্থত্যাগই শিক্ষাদান করিয়া থাকেন, কিন্তু দুর্বলকে সবল কর্তৃক নিপীড়িত হইতে দেখিয়া নিশ্চেষ্টভাবে অবস্থান করা তিনি উচিত বিবেচনা করেন না। যাহারা স্বার্থের নিমিত্ত সংগ্রামে নিযুক্ত হয়, তাহারী কখনই যুদ্ধের সুফল প্রাপ্ত হয় না ; কিন্তু যাহারা ন্যায় ও সত্যের জন্য ংগ্রামে প্ৰবৃত্ত হয় তাহারাই যথার্থ জয়শ্ৰী লাভ করে। মানবগণ সর্বদাই জীবন-সংগ্রামে প্রবৃত্ত। কিন্তু7তাহা বলিয়া স্বার্থের নিমিত্ত ন্যায় ও সত্যপথ অতিক্রম করা অবিধেয়। যদি কোন ব্যক্তি ন্যায়সঙ্গত যুদ্ধে গমন করে, তাহা হইলেও তাহার মৃত্যুর নিমিত্ত প্ৰস্তুত হওয়া কৰ্ত্তব্য। যদি সে ব্যক্তি যুদ্ধে নিহত হয়, তাহা হইলে আক্ষেপের বিষয় কিছুই নাই। কিন্তু যে ব্যক্তি সংগ্রামে জয়লাত করে, তাহার পার্থিব পদার্থের অসারত্ব স্মরণ করা উচিত। যে ব্যক্তি যতই গৌরব অথবা জয় লাভ করুক না কেন, কালচক্রে পরমুহূৰ্ত্তেই তাহার দেহ ধূলিসাৎ হইতে পারে। কিন্তু যদি সে অন্তঃকরণ