পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১০০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জ্যৈষ্ঠ, ১৩১৭। মিলন। فسوا এমন সময় প্রাচীর ভাঙ্গিয়া উভয়ের উপর গৃহের চাল পড়িয়াছিল। উভয়ে আঘাতের উপর জীবন্ত সমাধির দারুণ যাতনা ভোগ করিয়া মরিয়াছে। আর সকলে শবদেহ টানিয়া বাহির করিল। মৃত্যুমুখে দিবালোক পড়িল । সে মুখ সুৰ্য্যকান্তের পরিচিত ; তঁহার পিতৃহৃদয়ে তাহার যে প্ৰতিচ্ছবি আছেउांश डिनि किछुडई भूछिबl cपजिहड श्रद्धन नाश्। শঙ্কাতাড়িতের মত চঞ্চলপদে সূৰ্য্যকান্ত সে স্থান ত্যাগ করিলেন। তিনি আর গৃহে ফিরেন নাই । তিনি নিরুদেশীযাত্রার যাত্রী। তিনি কোথায় গিয়াছেন, কেহ জানে না। তঁহার শূন্য গৃহে মুক্তবাতায়নপথে পবন যেন কাহার সন্ধান করিয়া ফিরে-তাহাকে না পাইয়া দীর্ঘশ্বাস ফেলিয়া চলিয়া যায়। শ্ৰীহেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ ঘোষ। মিলন । সেই প্ৰাণ, মন আছে, শুধু মোর নাহি কাছে, একখানি তরুণ হৃদয় ! আছে পড়ি’ কৰ্ম্মরাশি, পিছে নাই স্নিগ্ধ হাসি, আছে যশ, নাহি তাহে জয় ! ८छ् नि, निधि-८, সে নহে আমার তরে, २८श् उां’व्र ड्यांकूण निश्थंग्ज ; দিনশেষে নিশি আসে, ফিরিতে আপনি বাসে, শূন্য শয্যা করে উপহাস! R শুক্ল সন্ধ্যা সেই আসে, আর না। গবাক্ষ-পাশে, হেরি তা’র মধুর মুৱতি, দেখিত যে অনিমেষে- চাদ যায় ভেসে ভেসে, নীল জলে মরাল যেমতি । আছে জ্যোৎস্না-আছে নিশি, আছে চির সপ্ত-ঋষি, শুধু সে-ই নাহিক ধরায় ; জীবনের কোন পারে, আজি সুধাইব কারে” এক জন্ম আগে সে কোথায় ?