পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১০৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৯০ আৰ্য্যাবৰ্ত্ত। ১ম বর্ধ- ২য় সংখ্যা। পাষণের কথা | ( . ) আমার সময়ের ধারণা নাই, সুতরাং আমার জন্ম-মূহুৰ্ত্ত হইতে কত কাল অতীত হইয়াছে তাহা আমি বলিতে পারি না। যতদূর স্মরণ আছে তাহাই বলিতেছি। শৈশবের কথা এইমাত্ৰ মনে পড়ে যে, প্ৰশস্ত সমুদ্রসৈকতে আমি ও আমার ভ্ৰাতৃবৰ্গ খেলা করিয়া বেড়াইতাম-বায়ুভরে উড়িয়া যাইতাম, ঘূর্ণবাত্যায় ইতস্ততঃ বিক্ষিপ্ত হাইতাম, কখন বা সমুদ্রের জলে পতিত হইতাম, জল সরিয়া যাইলে-ভূমি। শুষ্ক হইয়া যাইলে পুনরায় ফিরিয়া আসিতাম। সে সমুদ্রের বিশালত ধারণা করিবার শক্তি তোমাদিগের নাই। সে সমুদ্রসৈকতের বিস্তৃতি তোমাদিগের মহাপ্ৰদেশসমূহের দৈর্ঘ্য অপেক্ষা অধিক। যে সকল জলজন্তু সেই মহাসমুদ্রে -ৰাস করিত যৌবনের মূছভঙ্গের পর তাহাদিগকে আর দেখি নাই। আমার শৈশবে আমি একবার মূৰ্ছিত হইয়াছিলাম। মুছােভঙ্গে দেখি, আমি যৌবনপ্রাপ্ত হইয়াছি। শুনিয়াছি, তোমাদিগের এই সংগ্রহশালায় সেই মহাসমুদ্রের diplom ৭৯-৮০ পৃষ্ঠায় সোণাবিবির এই অপূৰ্ব আত্মোৎসর্গের সংক্ষিপ্ত বিবরণ প্ৰদান করিয়াছেন। छिनि fvft(gat,- “Isha Khan's death was the signal for his enemies to swoop down upon his kingdom and wreak the vengeance which they had so often before attempted in vain. Kedar Rai * * with the Raja of Tipperah sailed up the Megna with a great fleet, confident of success now that the great Afghan Chief was gone. But they were soon to find tha though sha Khan was dead, a valiant defender remained to guard hi memory and protected his kingdom. Their own kinswoman, the Afghan's widow was as vigorous and determined a foe as Isha Khan himself. Entrenched in the fort of Sonakunda on the Lakhiya she held out stubbornly for many weeks, defying all the forces of her enemies, and at length, when the end drew near, determined that her dead lord's fort should never surrender to his foes, she ordered it to be burned to the ground, and perishing in its ashes, made of it her funeral pyre. To this day the memory of Sona Bibi is held in honour on the banks of the Lakhiya.”