পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>R আৰ্য্যাবৰ্ত্ত। Y -- it মুছা হইয়াছিল তাহাও পূর্বে বলিয়াছি। একদিন সূৰ্য্যান্তকালে কোন দারুণ আঘাতে সমুদ্রগর্ভ বিদীর্ণ হইয়া গেল, গভীর আলোড়নে বিশাল জলরাশি BDBD DBD DDDB DBDBBBS BD BDBBDBD DDD DBB DBDD DDDS হইলাম। তাহার পর কালপ্রবাহ কি ভাবে কতদূর অগ্রসর হইয়াছিল। তাহা কেমন করিয়া বলিব ? অজ্ঞান অবস্থায় আমি যেন অত্যন্ত ক্লেশ৷ অনুভব করিতাম, যেন দুর্বিষহ যাতনা অনুভূত হইত, বোধ হইত যেন কেহ ভীষণ বলে আমার ক্ষুদ্র দেহখানিকে ক্ষুদ্রতর করিবার চেষ্টা করিতেছিল। এতদ্ব্যতীত আর কিছুই স্মরণ নাই। মুছােভঙ্গে দেখি, অজ্ঞাত শক্তির প্রয়োগে বালুকক্ষেত্রে বিষম বিপৰ্য্যয় ঘটিয়াছে। সেই সমুদ্রসৈকত, সেই বিশাল জলরাশি, সেই সব জীবজন্তু উদ্ভিদ সমস্তই অন্তহিঁত হইয়াছে, সে জগৎ আর নাই ; অদৃশ্য শক্তির প্রভাবে লক্ষ লক্ষ বালুকাকণা একত্র হইয়া রক্তবর্ণ প্ৰস্তরে - পরিণত হইয়াছে, আমার শৈশবের দেহ তখন বিশাল অশ্ম খণ্ডের কণিকামাত্রে পরিণত হইয়াছে, আর আমার স্বাধীনতা লুপ্ত হইয়াছে। চেতনার প্রারম্ভে দেখিলাম, নূতন জগতে তৃণশষ্প, তরুলতা, জীবজন্তু প্ৰভৃতি সমস্তই পরিবৰ্ত্তিত হইয়াছে। সে নুতন জগতের আকার অনেকটা বৰ্ত্তমান জগতের ন্যায়। তাহার পর স্থানে স্থানে পরিবর্তন হইয়াছে মাত্র । আমি তখন যে প্রস্তরখণ্ডের দেহে লীন হইয়াছিলাম মুচ্ছ অবসানে দেখি, তাহার দেহ স্নিগ্ধ খাম দুৰ্ব্বাদলে। আচ্ছাদিত ; নূতন আকারের চতুষ্পদ জীব তাহার উপরে বিচরণ করিতেছে। সময়ে সময়ে মসীকৃষ্ণবর্ণ ছাগচৰ্ম্মাচ্ছাদিত তোমাদিগের স্বশ্রেণীর জীবগণ তাহাদিগকে আক্রমণ করিতে আসিত। তাহারা নখ, দন্ত, বা উপলখিণ্ডের সাহায্যে চতুষ্পদ জীবগুলিকে জয় করিবার চেষ্টা করিত ও লোকবলের আধিক্যে অনেক সময় তাহাদিগকে নিধন করিতে সমর্থ হইত ; কিন্তু কখন কখনও শৃঙ্গের তাড়নায় পরাজিত হইয়া পলায়ন করিতেও বাধ্য হইত। আমার নিকটে ইহাই মানব-জীবনের ইতিহাসের সূত্রপাত। মনুষ্য আমার নিকটে তখন নবজাত জীৰ। আমি যখন জ্ঞানলাভ করি তখন মনুষ্যজাতি উন্নতির পথে কিয়দ্দূর অগ্রসর হইয়াছে, সুতরাং মনুষ্য জীবনের প্রারম্ভের কথা বলিতে আমি অক্ষম। আমি সর্বপ্রথমে মনুষ্যজাতীয় যে সকল জীব দেখিয়াছিলাম তাহারা অত্যন্ত খর্বাকৃতি ছিল এবং মৃগয়াই তাহাদিগের উপজীৰিকা ছিল বলিয়া বোধ ইত । শুনিয়াছি। তদ্বংশীয়েরা দক্ষিণ সমুদ্রের উপকূলে অভ্যাপি বাস করিয়া থাকে; অপেক্ষাকৃত বলবান জাতি কর্তৃক