পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অস্ত্র ধারণ করিয়াছিলেন। যুদ্ধে জয়ী হইয়া আগন্তক রমণীকে লইয়া করি।পৃষ্ঠে স্বস্থানে প্ৰস্থান করেন। রমণী প্ৰথমে বিষন্ন ভাবে দিনযাপন করিতে থাকেন ; পরে যুবকের প্রেমে আকৃষ্ট হইয়া সুখে কালব্যাপন করেন। ত্রয়োবিংশ শতাব্দী পুর্বেও মানুষ রমণীরূপলাবণ্যে মুগ্ধ হইত ; তাহার জন্য জীবনের মায়া ত্যাগ করিয়া যুদ্ধ করিত । তখন রমণীরাও সতীত্বের ও সম্মানের জন্য অস্ত্র ধারণা করিাতেন । তখনও মানুষ এখনকারই মত রিপুতাড়না ভোগ করিত, জীবন-স্রোতে ভাসিয়া কাম্য বস্তুর অন্বেষণ করিত । তখনও প্ৰেম সৰ্ব্বজয়ী ! এই প্ৰস্তরশিল্প যেন অনন্তকালের জন্য ঘোষণা করিতেছে, সৃষ্টির আরম্ভ হইতে আজ পৰ্য্যন্ত মানুষের চিত্তবৃত্তি একই পথে পরিচালিত। যাহা চিরন্তন, যাহা সত্যতাহা অপরিবর্তনীয়। গুহাগাত্রে ক্ষোদিত চিত্র, বিলাসের, রূপের, ঐশ্বৰ্য্যের, ভোগের। আর এই গুহায় যাহারা বাস করিত তাহারা বিলাস ত্যাগ করিয়াছিল, রূপ তুচ্ছ জ্ঞান করিত, ঐশ্বৰ্য্য ঘূণা করিত ; তাহারা ত্যাগী। তাহারা নিৰ্বাণলাভপ্ৰয়াসী। প্রভাতঅরুণালোকে যখন তাহারা ভিক্ষাভাণ্ড লইয়া পৰ্ব্বতপদে গৃহস্থের দ্বারে উপনীত হইত, তখন গৃহী সসন্ত্রমে সেই ভিক্ষাভাণ্ড পুর্ণ করিয়া আপনাকে ধন্য মনে করিত। তাহারা দীর্ঘ দিন ধৰ্ম্মালোচনার ও সাধনায় অতিবাহিত করিত। দিব্যাবসানে গুহামুখে বসিয়া তাহারা স্নানসূৰ্য্যালোকপ্লাবিত পশ্চিম গগনে কোন অজাতজগতের আভাস পাইত ? তাহা বুঝিবার শক্তি আমার নাই। . দেখিতে দেখিতে খণ্ডগিরির উপর সন্ধ্যার ধূসর অঞ্চল লুটাইয়া পড়িল । আমরাও বঙ্কিমচন্দ্রের সেই কথা মনে করিতে করিতে খণ্ডগিরি ত্যাগ করিালাম ঃ-“পাখর এমন করিয়া যে পালিশ করিয়াছিল, সে কি এই আমাদের মত হিন্দু? এমন করিয়া বিনা বন্ধনে যে গাঁথিয়াছিল, সে কি আমাদের মত হিন্দু ? আর এই প্ৰস্তরমূৰ্ত্তি সকল যে খোদিয়াছিল--এই দিব্যপুষ্পমাল্যাভরণভূষিত, বিকম্পিতচেলাঞ্চল প্ৰবৃদ্ধিসৌন্দৰ্য্য, সৰ্ব্বাঙ্গসুন্দরগঠন, পৌরুষের সহিত লাবণ্যের মূৰ্ত্তিমান সংমিলনস্বরূপ পুরুষমূৰ্ত্তি যাহারা গড়িয়াছে, তাহারা কি হিন্দু? এই কোপপ্রেমগৰ্ব্বসৌভাগ্যক্ষরিতাধরা, চীনাথারা, তরলিতরত্নহারা, *ीवब्रहयोवनতারাবনতাদেহ তম্বী শু্যামা শিখরদশনা পক্কবিদ্বাধরোষ্ঠী । মধ্যে ক্ষমা চকিতহরিণীপ্ৰেক্ষণ নিয়নাভি এই সকল স্ত্রীমূৰ্ত্তি যারা গড়িয়াছে, তারা কি হিন্দু ” Printed by S. C. Glose at the lakehrn Printing Worke, 64 & 6412 SukEA's STREET, CALCUTTA.