পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১৭০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


värig, ses বিদুষী S(ty সুরমা স্বামীর ভাব দেখিয়া কিছু শঙ্কিত হইল ; জিজ্ঞাসা করিল, “কেন ?” মহিমচন্দ্র সে কথার উত্তর না দিয়া বলিলেন, ‘এখন রোগ কঠিন হইবার পূৰ্বেই ঔষধ দিতে হইবে।” । সুরমা আরও শঙ্কিত হইল ; বলিল, “কেন ? তোমার কি মনে হইতেছে ? কি করিবে ?” পত্নীর শঙ্কা দেখিয়া মহিমচন্দ্ৰ হাসিয়া ফেলিলেন ; বলিলেন,-“যু কের কল্পনা-বিহগ অধিক দূৰ উড়িবার পূর্বে পরিণয়-ছুরিকার দ্বারা তাহার পক্ষ দুইটি কাটির দিতে হইবে, যুবক ভাবস্রোতে ভাসিয়া যাইবার পূর্বে পরিণয়-রুজ্জ, দিয়া তাহার গলদেশে পত্নীরূপ পূর্ণ কলস বঁাধিয়া দিতে হইবে।” এবার সুরমা ও হাসিল। সে বলিল, “অতি ভয় কেন ?” “ভরসাই বা কোথায় ? যে বয়স মানুষ ভালবাসিতে ও ভালবাসা পাইতে অভিলাষী হয়, ব্ৰজেন্দুর সে বয়স হইয়াছে। বিবাহটা দিয়া ফেলিলেই নিশিচন্ত ।” “কিন্তু পরীক্ষা না দিয়া দাদা বিবাহ করিতে চাহে না ।” “পরীক্ষার ও বিশেষ বিলম্ব নাই। এখন এ উপসৰ্গটার কি করা যায় ?” সেই দিন হইতে সুরমা ঘটকাদিগকে বিশেষ তাগাদ দিতে আরম্ভ করিল। 2ܪ যে উপসর্গের জন্য মহিমচন্দ্ৰ চিন্তিত হইয়াছিলেন, সে উপসর্গ যেমন অপ্ৰত্যাশিত ভাবে উপস্থিত হইয়াছিল। তেমনই অতর্কিত ভাবে অন্তহিত হইল। পাশ্বের বাড়ীর ভাড়াটিয়াটি বাড়ী ত্যাগ করিয়া যাইলেন। তিনি যে তিন মাসের কিছু অধিককাল সে পল্লীতে ছিলেন সে সময়ের মধ্যে কাহারও সহিত মিশেন নাই। কাযেই কেহ তঁাহার গমনে দুঃখিত হইল না । কেবল ব্ৰজেন্দু যেন কিসের অভাব অনুভব করিল। সুখের বিষয় তখন তাহার পরীক্ষার সময় সমাগত। সে অধ্যয়ন লইয়া ব্যস্ত ; সে অভাব বিশেষ রূপ অনুভব করিবার সময় পাইল না । এদিকে একটি মনোমত পাত্রীর সন্ধান পাইয়া-পাত্রী দেখিয়া মহিমচন্দ্ৰ শাশুড়ীকে সে সম্বন্ধের কথা বলিয়া তাহার মত জিজ্ঞাসা করিলেন। শাশুড়ী বলিলেন, “তুমি যখন দেখিয়া পসন্দ করিয়াছ, তখন আমার আর অমত S S BBBD BBDBDB DDD DDS BBDDB BDB DBD DBBDB DDD S i