পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/১৭৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Verist, y04 পাষাণের কথা । See পাওয়া যায় না। সযত্ন-সংগৃহীত বুদ্ধদেবের ভস্মরাশি পাটলীপুত্রের রাজপথের ধূলিরাশির সহিত মিশ্রিত হইয়াছে। কপোতিক সঙ্ঘারামের মহাস্থবিরের ছিয়শীর্ষ দক্ষিণনগরদ্বারে কীলকাবদ্ধ হইয়া আছে। মগধে সদ্ধৰ্ম্মের নাম-তথ্যগতের নাম লোপ পাইয়াছে। যাহারা এখনও বুদ্ধের নাম স্মরণ করিয়া থাকে, দশশীল বিস্মৃত হয় নাই, ভিক্ষু ও শ্রমণগণকে ভক্তি করে তাহারাও প্ৰকাশ্যে ব্ৰাহ্মণ্য ধৰ্ম্মের আশ্রয়ে আছে। সদ্ধৰ্ম্মের লোপের সহিত স্তুপ, গৰ্ভচৈত্য, বিহার, সঙ্ঘারাম প্রভৃতিরও লোপ হইতেছে। উপাসক-উপাসিকা, DDi DiBS BBBBB BD D DD BB DDDBD BD BDKK হইয়াছে। তথ্যাগতের ধৰ্ম্ম সাধারণ লোকে ক্রমশঃ বিস্মৃত হইতেছে, এখনও যাহাঁদের স্মরণ আছে তাহারাও মন্দিরবিহারাদির অভাবে যথারীতি উপাসনা করিতে পারেন না । মথুরা হইতে পাটলীপুত্ৰ পৰ্য্যন্ত ও শ্রাবস্তী হইতে বিদিশা পৰ্য্যন্ত বৌদ্ধ মন্দির, বিহার প্রভৃতির চিহ্নও দেখা যায় না। আমি বিংশতিবর্ষকলা চেষ্টাকরিয়া এই নগরে বিদিশার সারীপুত্র ও মৌগোল্যায়নের ভস্ম স্তুপের অনুরূপ, একটি স্তুপ প্রতিষ্ঠার জন্য অর্থ সংগ্ৰহ করিয়াছি। আমাদিগের সংখ্যার এত হ্রাস হইয়াছে যে একটি স্তপ নিৰ্ম্মাণের ব্যয় সংগ্রহের জন্য আমাকে পাটলীপুত্ৰ হইতে বিদিশা পৰ্য্যন্ত সকল নগরবাসীরই সাহায্য প্রার্থনা করিতে হইয়াছে। যখন পুষ্যামিত্রের অত্যাচারে মগধ ত্যাগ করিয়া মহাকোশলে আশ্রয় গ্ৰহণ করি, তখন তোমাদিগের বর্তমান রাজার পিতা আগরাজু সিংহাসনে আসীন ছিলেন। চিরকাল এই রাজবংশ তথাগতের বাক্যে বিশ্বাস করিয়া আসিয়াছেন, সদ্ধৰ্ম্মের এই দারুণ দুর্দিনেও ইহঁাদিগের বিশ্বাস আচল রহিয়াছে। চতুর্দিকের উৎপীড়িত প্রকৃত বিশ্বাসীদিগের একমাত্র আশ্রয় স্থল এই রাজ্যে এতদিন পরে স্তুপ ও মন্দির নিৰ্ম্মাণের উপায় হইল। শুনিয়াছি, মথুৱায়। সদ্ধৰ্ম্মের অনুচরগণ একটি স্তুপ নিৰ্ম্মাণ করতেছেন, তোমাদিগের রাজা ধনভূতি মথুরাবাসীদিগকেও অর্থসাহায্য । করিতেছেন ও সেই সাহায্যে স্তম্পবেষ্টনীর কয়েকটি স্তম্ভ নিৰ্ম্মিত হইতেছে। মহারাজের আনুকূল্যে তোমাদিগের স্তপের চতুঃপার্শ্বস্থ তোরণচতুষ্টয় নিৰ্ম্মিত হইবে। অবশিষ্টাংশের ব্যয় প্ৰকৃত বিশ্বাসিগণ বহন করিবেন। ভরসা করি সদ্ধৰ্ম্মের পুনরুত্থান ও ব্ৰাহ্মণ্যধৰ্ম্মের পতন হইবে। যে অশ্মরাশি সঞ্চিত হইয়াছে তাহাদ্বারা নিৰ্ম্মিত গগনস্পর্শ স্তপ আচন্দ্রার্ক-ক্ষিতি-সমকাল সদ্ধৰ্ম্মের উন্নতির সাক্ষীরূপে বিরাজ করবে।” এই সময়ে নগরের দিকে রাজপথে ধূলি উখিত হইয়া কিয়ৎক্ষণ পরে দৃষ্ট