পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/২২১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


RÖR ། གནསོ-ཡབ་ཀྱི་གངས། ། আবাসস্থল নিৰ্ম্মাণোপযোগী কাষ্ঠ, তৃণাচ্ছাদনের জন্য তৃণপত্ৰাদি, রজজুর উপকরণ, মাদুর নিৰ্ম্মাণের কাট, চৰ্ম্ম পরিষ্কারের নিমিত্ত বৃক্ষত্বক, ক্ষেত্রের উর্বরতা পরিবদ্ধক বৃক্ষের পত্র, বিভিন্ন প্রকার রং, গালা, ধূনা, গৃহস্থের ব্যবহারোপযোগী তৈলাদি, বিবিধ প্রকার ফল, মূল, ফুল, মধু প্ৰভৃতি মানবের নিত্য প্রয়োজনীয় অশেষবিধ সামগ্ৰী এই খাপন্সিস্কুল অরণ্য হইতে সংগৃহীত হইয়া থাকে। সেগুণ, মেহগনি, চন্দন, আবলুস প্রভৃতি কাষ্ঠ কারুকাৰ্য্যে ও গৃহসরঞ্জামে ব্যবহৃত হয় । এতদ্ভিন্ন প্ৰায় সকল জাতীয় কাষ্ঠই লোকে “জ্বালানী” রূপে ব্যবহার করিয়া থাকে । আবার হরিতকী, বয়ড়া, অনন্তমূল, মাজুফল, টােরী প্রভৃতি আরণ্য দ্রব্য ভারতবর্ষ হইতে সুপ্তিানী হইয়া থাকে। এতদ্ভিন্ন বনে গুটী, লাক্ষা প্রভৃতিও প্রচুর পরিমাণে উৎপন্ন হয়। ফল কথা, অরণ্য-সংরক্ষণে কেবল স্থানীয় লোকের বা জনকয়েক ব্যবসায়ীর সুবিধা নহে, পরন্তু সমগ্ৰ দেশের উপকার। ভারতীয় অরণ্যবিভাগের ইনসাপেক্টর জেনারেল মিঃ উইলমট সম্প্রতি একটি সন্দর্ভে ভারতীয় অরণ্য-সংরক্ষণ সম্বন্ধে অনেক কথা লিখিয়াছেন। ভারতবর্ষে সরকার হইতে অরণ্য-সংরক্ষণ বিষয়ে যথেষ্ট যত্ন ও অর্থব্যয় হইয়া বিলক্ষণ সুফল লাভ ঘাঁটিতেছে। নিবিড় অরণ্যে মানবের আবশ্যক যে যে সামগ্রী পাওয়া যায়, তাহা সংগ্ৰহ করিয়া সরকারী পক্ষ হইতে কলিকাতার সংগ্ৰহ-শালায় সে সকলের বিবরণ, প্ৰাপ্তিস্থান প্ৰভৃতি জ্ঞাতব্য বিষয় লিপিবদ্ধ করা হইয়াছে। ডাক্তার eace efsites (Dictionary of Economic Products of India ) অধিকাংশ ভাগ কেবল আরণ্য দ্রব্যের বিবরণে পূর্ণ। যে আরণ্য দ্রব্য বিদেশে রপ্তানি হইয়া থাকে তাহার পরিমাণ অতি সামান্য । তাহার কারণ, দেশের লোক সে সকলের ব্যবহার সম্বন্ধে এরূপ অনভিজ্ঞ যে, অধিকাংশ দ্রব্যই দেশে পড়িয়া পচিতে থাকে। এতদ্ভিন্ন আরও অনেক অসুবিধা আছে। অরণ্য হইতে লোকালয়ে দ্রব্য বিক্রয়ার্থ আনিবার পথ তাদৃশ সুগম নহে ; আর সেই পথ সুগম করিতে কিম্বা। আরণ্য দ্রব্যসমূহ বহন করিয়া আনিতে যে ব্যয় পড়ে, তাহাও সামান্য নহে। অযোধ্যার এবং মধ্য প্রদেশের অরণ্যে তুলনা করিলে ইহা বুঝিতে পারা যায়। অযোধ্যার জঙ্গলের সন্নিকটে লোকালয় থাকাতে তথায় প্রতি বর্গমাইলে প্রায় তিনশত টাকা কর আদম হইয়া,থাকে। কিন্তু মধ্য ভারতের জঙ্গল হইতে প্রতি বর্গমাইলে পঞ্চাশ টাকা আয় হয় না; কারণ, এই স্থানে জঙ্গল পরিষ্কার করিবার জন্য কাষ্ঠ কাটাইতে কাঠুরিয়াকে সমস্ত কাষ্ঠ বিনামূল্যে দিতে হয়। নিকটে লোকের বসতি থাকিলে এরূপ হইত না।