পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eft, yo»ʻq i 衍面夺颈1 ܘ তাকুর দৃষ্টান্ত দিতে লাগিলাম ; সাগ্রহে তাহাকে নিৰ্দোৰ প্ৰতিপন্ন করিতে চেষ্টা করিতে লাগিলাম। আমি যে জয়ী হইব। তাহাতে আমার সন্দেহ মাত্র ছিল না। আমার বক্ততার মধ্যভাগে অপর পক্ষের বৃদ্ধ উকীল উঠিলেন, হাসিয়া-বিদ্রুপব্যঞ্জক দৃষ্টিতে আমার দিকে চাহিলেন, বিচারককে বলিলেন, “আমার এই বন্ধু অতি অল্পদিন বিদ্যালয় ছাড়িয়াছেন। তিনি যে বিদ্যালয়ে নাই – আদালতে উপস্থিত একখাঁ তাহাকে স্মরণ করাইয়া দিতে হইতেছে। দর্শনশাস্ত্রের কথা বাদ দিয়া আইনের কোন কথা থাকিলে তিনি তাহাই বলুন।' “তিনি উপবেশন করিলেন। তখন আমি নূতন ব্ৰতী। তাহার এই আচরণ নিতান্ত নিষ্ঠুর বলিয়া বোধ হইল। আমি বক্ততার মধ্যভাগে এরূপ বাধাপ্ৰাপ্তির আশঙ্কা করি নাই ; থাতমত বোধ করিলাম। সমস্ত আদালতে হাস্যধ্বনি শুনা গেল। আমি লজ্জায়-ক্ৰোধে অধীর হইয়া পড়িলাম । “যে বিচারকের নিকট মোকৰ্দমার বিচার হইতেছিল, তিনি বৃদ্ধ ; বয়সের নিয়মে তাহার। নিৰ্দ্ধারিত কাৰ্য্যকাল শেষ হইয়া গিয়াছিল, সরকারের অনুগ্রহে তিনি তখনও চাকরী করিতেছিলেন। দুষ্ট লোকে বলাবলি করিত, চাকরী আরম্ভকালেও তিনি বয়স কম লিখাইয়াছিলেন। এই সুদীর্ঘকাল অপরাধীদিগের সহিত ব্যবহারের ফলে আপনার গৃহিণী ব্যতীত অপরের সাধুতায় তাহার বিশ্বাস বিলুপ্ত হইয়াছিল। ইহার উপর আবার তিনি অত্যন্ত শাস্তিদানপ্রিয় ছিলেন। তিনি আমার কোন কথায় কৰ্ণপাত করা আবশ্যক মনে করিলেন না ; চিত্রকরকে এক পক্ষের জন্য কারাগারে পাঠাইলেন। চিত্রকর আর ফিরিয়া আইসে নাই। 来 米 来源 来源 来源 米 秦 来 来源 米 “এদিকে সেই মোকৰ্দমা হইতে আদালতে সকলে আমাকে বিদ্ররূপ করিয়া ‘অধ্যাপক? বলিতে লাগিল । মকেল পণ্ডিত উকীল চাহে না, যে উকীল যে উপায়েই হউক জয়ী হইতে পারেন। তঁহারই সন্ধান করে-তাহার অবলম্বিত ' ' উপায়ের বিষয় বিচার করে না । কাযেই তাহারা আর ‘‘অধ্যাপককে’ মোকর্দমা দিত না । এই তা অবস্থা । তাহার উপর বিদ্রেরূপ। অগত্যা আমি আলিপুর ত্যাগ করিয়া হাইকোর্টে আসি।” আমি বলিলাম, “তোমার কপাল খুলিল। তোমার পক্ষে সেই হইতেই সৌভাগ্যের আরম্ভ হইল।” আমরা সকলেই হাসিলাম । শ্ৰীহেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ ৰোষ । s