পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/২৭৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Roy আৰ্য্যাবৰ্ত্ত। ১ম বর্ষ-৪র্থ সংখ্যা । স্থির করিতে পারিল না। শেষে সে অন্ধকে পাঁচটি টাকা দিয়া বলিল, “তুমি কল্য আবার আসিও ।” ༦ অন্ধ ও বালক চলিয়া গেল। :তরুবালা আপনার শয়ন কক্ষে যাইয়া পতির চিত্রের নিম্নে হৰ্ম্মতলে লুটাইয়া কঁাদিল ;-সে। এখন কি করিবে ? পরদিন তরুবালা তাহদের আগমনপ্রতীক্ষা করিতে লাগিল। ক্রমে দিরাবসান হুইল- তাহারা আসিল না । তখন তরুবালার হৃদয় চঞ্চল হইয়া উঠিল। আরও একদিন গেল ; তাহারা আসিল না। তখন তরুবালা ভাবিল, কেন সেই দিনই তাহাদেৱ থাকিতে বলি নাই ? সে আপনাকে আপনি দোষী डांदिवा । পরদিন প্ৰাতে বালক একাকী আসিল । তাহার নয়ন ক্ৰন্দনৰ্ম্মফীত ; পরিধানে ‘কাচ” । সে তরুবালাকে দেখিয়া কেবল কঁাদিতে লাগিল। বহু কষ্ট তাহাকে একটু শান্ত করাইয়া তরুবালা জানিল, গত পরশ্ব তাহার গৃহে আসিবার সময় পথে অন্ধের সন্দিগৰ্ম্মি হয় । সে পথে পড়িয়া যায় । কয়জন পথিক দয়াপরবশ হইয়া তাহাকে হাসপাতালে লইয়া যায়েন-তথায় তাহার মৃত্যু হইয়াছে। হাসপাতালের দুইজন ভূত্য বালকের প্রতি দয়াবশে তাহাকে শবের সঙ্গে লইয়া যাইয়া শেষ কাব্য করাইয় তাহাকে, তাহার নির্দেশমত, তরুবালার গৃহদ্বারে পৌছাইয়া দিয়া fist তরুবালা বালককে সাম্বনা দিবার চেষ্টা করিতেছিল বটে, কিন্তু বালকের দুঃখে তাহার। আপনার হৃদয় সাত্মনা মানিতে ছিল না। বালক কঁদিতে কঁাদিতে জিজ্ঞাসা করিল, “আমি কাহার কাছে থাকিব ?” তরুবালা বলিল, “তুমি আমার কাছে থাকিবে।” বালক ক্ৰন্দন ভুলিয়া তরুবালার মুখে চাহিল। তাহার দৃষ্টিতে কি অসীম FTITVS ! সেই দৃষ্টিতে তরুবালার মেহের উৎস মুক্ত হইয়া গেল। সে জিজ্ঞাসা করিল, “তোমার ঠাকুরমা তোমাকে খুব ভালবাসিতেন ?” বালক বলিল, “হা, খুব ।” তরুবালা বলিল, “আমি তোমার ঠাকুরমা হইব।” বালকের অশ্রুসজল নয়নে হর্ষদীপ্তি ফুটিয়া উঠিল।