পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৩০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૨૦૦ . . আৰ্য্যাবর্ত १ ܛܰܟ-cܕ i গণের পদধূলি সঞ্চিত করিলে সেরূপ মৃৎপিণ্ড নিৰ্ম্মিত হইতে পারিত। স্তপের ক্ষেত্র বৃত্তাকার, সুতরাং তাহার বেষ্টনও বৃত্তাকার। স্তুপের পার্শ্বে পঞ্চহস্ত বিস্তৃত পরিক্রমণের পথ ; এই পথও পূর্ণবৃত্তাকার ছিল। তিৰ্য্যগভাবে যোজিত প্ৰস্তুরখণ্ডের সমাবেশ করিয়া এই পথ নিৰ্ম্মিত হইয়াছিল। পরিক্রমণের পথ বলিলে সহজবোধগম্য হইবে না, কালে তীর্থযাত্রীর ভাষাও পরিবর্তিত হইয়াছে, তাহারা এখনও পরিক্রমণ করিয়া থাকে, পুজ্যব্যক্তির বা বস্তুর অৰ্চনার পূর্বে বা পরে প্ৰদক্ষিণ করিবার প্রথা এখনও তীর্থযাত্রীদিগের মধ্যে বর্তমান আছে ; ইহাই পরিক্রমণ। পুণ্যার্থী পূর্ব তোরণ দিয়া স্ত। পবেষ্টনের মধ্যে প্রবেশ করিয়া প্ৰথমে পুষ্পাঞ্জলি প্ৰদান করিত, পরে পরিক্রমণের পথ তিনবার বা সাতবার অতিক্রম করিয়া পুনরায় স্তুপ অৰ্চনা করিত। স্তপ নিৰ্ম্মাণের কাল হইতে মুসলমানসমাগমকাল পৰ্য্যন্ত অৰ্চনার এই প্ৰথাই প্ৰচলিত ছিল । তাহার পর আর কেহ স্তুপের অৰ্চনা করে নাই। সে অনেক পরের কথা। স্তু পবেষ্টনের পরে ত্ৰিহস্তপরিমিত স্থান ছিল, ইহার পরে বৃত্তাকার প্রথম স্তম্ভশ্রেণী। সমান্তরালে স্তম্ভশ্রেণীর মধ্যে চারিদিকে চারিটি তোরণ ছিল ও প্ৰতি তোরণের সম্মুখে এক একটি আবরণ স্থাপিত হইয়াছিল। এই আবরণ ও স্তম্ভ, সুচি ও আলম্বন-সজ্জায় নিৰ্মিত। স্তুপের পূর্বদিকে যে তোরণ ছিল, তাঁহাই প্রধান তােরণ বলিয়া গণিত হইত ; কারণ, স্তপের পূর্বদিকেই নগর অবস্থিত ছিল। দুইটি স্তম্ভের উপর তোরণ স্থাপিত ; প্রতি স্তম্ভ একখণ্ড প্রস্তর হইতে ক্ষোদিত অষ্টকোণ স্তন্তচতুষ্টয়ের সমষ্টি। স্তম্ভশীর্ষে চতুষ্কোণ প্রস্তরখণ্ডের উপর পত্রপুষ্পপল্লবমধ্যে দুইটি উপবিষ্ট সিংহমূৰ্ত্তি। সিংহপৃষ্ঠের উপর ন্যস্ত পুষ্পমালা শোভিত চতুষ্কোণ প্রস্তরখণ্ডের উপর তোরণগুলি স্থাপিত। সমান্তরালে তিনটি তোরণ এইরূপ চতুষ্কোণ ব্যবধানের উপর স্থাপিত হইয়াছিল। সিংহচতুষ্টয়ের পৃষ্ঠস্থ চতুষ্কোণ শিলাখণ্ডের উপর প্রথম তোরণ। উহার উভয় পার্শ্ব গোলাকার ; এই অংশে কুণ্ডলীকৃতপুচ্ছ এক একটি মকর মুখব্যাদান করিয়া রহিয়াছে। মকরের সম্মুখে, দক্ষিণ পার্শ্বে একটি মন্দির ও বাম পার্শ্বে একটি স্তুপ। মন্দিরটি স্তম্ভশ্রেণীবেষ্টিত, চুড়ায় কেতন উডীয়মান, মন্দিরমধ্যে পুস্পাবৃত বেদী ও মন্দিরদ্বারা পুস্পমাল্য পরিশোভিত । অপটি দুই শ্রেণীর স্তম্ভবেষ্টনের মধ্যে অবস্থিত ও স্তম্ভশ্রেণীদ্বয়ের ব্যবধানে পরিক্রমণের পথ। অন্তরের স্তম্ভবেষ্টনের মধ্যে স্তুপের উভয়পার্শ্বে সুদীর্ঘ কেতন উডীয়মান। অৰ্দ্ধবৃত্তাকার স্তুপ পুষ্পমাল্যবিজড়িত। স্তুপের উভয় পার্শ্বে মকরের নাসিকাগ্ৰভাগে স্তম্ভৰেষ্টনীর সম্মুখে প্ৰস্ফুটিত কমলসমূহ ক্ষোদিত। মন্দির ও স্তুপের ।