পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৩২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভাত্র, ১৩১৭। মৃত্যু-মিলন । , | eo | ത്തിത്ത রাজা চিন্তিত ভাবে বলিলেন, “কাহার নিকট প্ৰস্তাব করা যাইৰে ?” “এখন তাহার আত্মীয়দিগের নিকটই প্ৰস্তাব করিয়া দেখিতে হয়।” “আমি কিছু স্থির করিতে পারিতেছি না। বালিকা এ প্রস্তাবে সম্মত হইবে কি না, জানি না। তাহার আত্মীয়গণ কি কোনরূপ দায়িত্ব লাইতে প্ৰস্তুত হইবেন ? আমার এখন কৰ্ত্তব্য কি ?” শঙ্কর সিংহ ভাবিতে লাগিলেন । কিছুক্ষণ পরে রাজা বলিলেন, “চল, উভয়ে একবার পুরোহিতের গৃহে যাই । তথায় অবস্থা বুঝিয়া যে ব্যবস্থা হয়, করা যাইবে।” রাজা প্ৰতিহারকে ডাকিয় তাহার জন্য ও শঙ্কর সিংহের জন্য দুইটি অশ্ব সজিত করিতে আদেশ করিলেন । প্ৰতিহার জিজ্ঞাসা করিল, “সঙ্গে কয়জন রক্ষী যাইবে ?” রাজা বলিলেন, “সঙ্গে কাহারও যাইবার প্রয়োজন নাই ।” প্ৰতিহার। চলিয়া গেল । কিছুক্ষণ পরে প্রতিহার ফিরিয়া আসিয়া জানাইল, অশ্ব সজ্জিত হইয়াছে, প্ৰাঙ্গণে উপস্থিত । রাজা প্ৰস্তুত হইয়া ছিলেন ; এই কথা শুনিয়া প্ৰাঙ্গণমুখগামী হইলেন। শঙ্কর সিংহ তাহার অনুসরণ করিলেন। উভয়ে অশ্বারোহণে পুরোহিতপল্লীতে চলিলেন । অশ্বদ্বয় বৃদ্ধ পুরোহিতের গৃহদ্বারে দণ্ডায়মান হইলে নানা গৃহ হইতে অনেকে সেই গৃহদ্বারে আসিয়া উপনীত হইলেন । রাজা অশ্বপৃষ্ঠ হইতে অবতরণ করিয়া বালিকার কথা জিজ্ঞাসা করিলেন। রাজার আগ্ৰহ দেখিয়া সকলেই এমন ভাব দেখাইতে লাগিলেন, যেন সকলেই বালিকার দুঃখে কাতর। কিন্তু তাহা না হইলে, তাহারা সেই শোকাতুরার, শুশ্রুষা করা দূরে থাকুক, সংবাদণ্ড লইতেন কি না সন্দেহ। ৰাজা পূর্বদিন যাহাদিগের উপর বালিকার রক্ষণাবেক্ষণের ভার দিয়া গিয়াছিলেন, তঁহাদিগকে জিজ্ঞাসার ফলে অবগত হইলেন, বালিকা এখন শান্ত হইয়াছে ; গত রাত্ৰিতে তাহার শুশ্রুষার কোনরূপ ক্ৰটি হয় নাই, বরং রাজার অনুগ্রহভাজন হইবার আশায় এত অধিক আত্মীয় আত্মীয়তা দেখাইয়াছেন যে, বালিকা বােধ হয় সাত্মনার ও শুশ্রুষার আধিক্যে ও অত্যাচারে বিব্রত হইয়াছে । - রাজা পল্পীবৃদ্ধদিগকে বলিলেন, “বৃদ্ধ পুরোহিত মহাশয় কোথায়, কেহ