পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৩৮৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হইয়া উঠিতেছিল। তাহার পর ইংরেজ যখন কলিকাতায় মাদ্রাসা, ফোর্টউইলিয়ম কলেজ, সংস্কৃত কলেজ, হিন্দুকলেজ খুলিয়া দেশীয় যুবকদিগের বিস্তাশিক্ষার ব্যবস্থা করিলেন, তখন বঙ্গদেশ টলমল করিয়া উঠিল । ইংরেজী শিক্ষার বিস্তার করিয়া ইংরেজরাজ যে বিপ্লবের সূচনা করিলেন, তাহাতে সমাজদেহ সজীৱ হইয়া উঠিল। বহুদিন বাঙ্গালীর মস্তিষ্ক অনুর্বর ও নিজীবী হইয়া পড়িয়াছিল ; সংস্কৃতজ্ঞ কতিপয় পণ্ডিত আবিচমানকাল প্রচলিত কাব্যের শ্লোক আওড়োইয়া, অথবা ন্যায়ের ফাঁকির চর্বিতচর্বণ করিয়া পাণ্ডিত্যের পরিচয় দিতেন । অধিকাংশ লোকই অজ্ঞতায় জীবন অতিবাহিত করিত। বহুদিন বাঙ্গালী নূতন তত্বের আস্বাদন হইতে বঞ্চিত ছিল। এখন যেমনি এই বিদেশীয় বিপুল সভাতার দ্বার উদঘাটিত হইল, অমনি দলে দলে লোক সেট মন্দিরে প্রবেশ করিতে লাগিল। লোকের মনে এই ধারণা হাঁটতে লাগিল যে, বিদেশীয় কাবা-দর্শন, Tবিদেশীয় পোষাক-পরিচ্ছদ, বিদেশীয় আচার-ব্যবহার সকলষ্ট ভাল। দেশীয় যাহা কিছু, সে সমস্তই অসঙ্গত, অসভা, কুৎসিৎ । এইরূপে দেশীয় আচার-ব্যবহারকে বলিদান করিয়া দেশে স্বাধীন চিন্তার যুগ প্ৰবৰ্ত্তিত হইল। কি প্রকারে এই স্বাধীন চিন্তার উদ্বোধন হষ্টয়াছিল, তাহা এতদ্দেশের ইতিহাসলেখকের পক্ষে একটি অনুসন্ধানযোগ্য ঘটনা । সেই সময় যে সকল আভ্যন্তরীণ ও বাহ শক্তিনিচয় কাৰ্য্য করিয়াছিল, তাহা সবিশেষ বিবৃত হইলে-জাতীয় ইতিহাসের একটি বিশেষ স্মরণীয় অধ্যায়ের সৃষ্টি করিবে। ইংরেজী শিক্ষা, ও ইংরেজী সভ্যতা যে এত সহজে এবং এমন গভীরভাবে এ দেশের লোকের মনে প্ৰতিষ্ঠিত হইল, ইহা কেবল কতকগুলি বাহ ঘটনাপরম্পরার ক্রিয়া হইতে পারে না। ভারতবর্ষীয়দিগের প্রকৃতি ও প্ৰবৃত্তি, আশা ও আকাঙ্ক্ষা এই শিক্ষণবিস্তারের অনুকুল ছিল, নচিলে এমন বিপ্লব কখনও হইতে পারিত না । ফলটি যখন গাছে পাকিয় উঠে এবং তাহার বোটাটি শিথিল হইয়া যায়, তখন তাহা সামান্য একটি পক্ষীর পদভরে খসিয়া পড়ে। এ দেশের আচার, অনুষ্ঠান, রীতি, নাতি এমনই অসঙ্গত, অনাবশ্যক ও বাহুল্যপূর্ণ হইয়া উঠিয়াছিল যে, লোকের মন শিক্ষার প্রথম বাতাসেই পুরাতন আশ্ৰয় ছাড়িয়া দিতে লাগিল। যে সকল বাহ কারণ এই ইংরেজী-সভ্যতা-বিস্তারের পথ প্রশস্ত করিয়া * দিয়াছিল, তাহার মধ্যে আমি কেবল কয়েকটির উল্লেখ করিব। সত্য থাকিলেই * শুধু হয় না, তাহার প্রচারক চাহি; ধৰ্ম্ম থাকিলেই লোকে ধাৰ্ম্মিক হয় না, তাহার পুয়োহিত চাহি ; এ দেশে ইরেজী-সভ্যতা-বিস্তারেরও তেমনি কয়েকজন প্রধান