পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৪৫৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“উপনিষৎ শব্দের প্রধান অর্থ ব্রহ্মবিদ্যা। তৎপ্রতিপাদক গ্ৰন্থও উপনিষৎ নামে । খ্যাত “সদস্থ বিশারণ গত্যবসাদনেযু’ অর্থাৎ সন্ধাতু বিশারণ গতি অবসান হয়। ব্রহ্মবিদ্যা সংসারবীজভূত অবিস্তাদি দোষের বিশারণ অর্থাৎ বিনাশ করে ; ; এই জন্য উপনিষৎ নামে আখ্যাত। ( অথবা পরব্রহ্মপ্ৰাপ্তি করায় কিম্বা সংসার । সারতা বুদ্ধিকে অবসন্ন অর্থাৎ শিথিল করে বলিয়া ব্ৰহ্মবিদ্যা উপনিষৎবাচ্য। এই ব্ৰহ্ম বিস্তাই পরা বিদ্যা বা শ্রেষ্ঠ বিদ্যা ; কারণ, এই ব্ৰহ্মবিদ্যা বা ব্ৰহ্মজ্ঞান হইলেই সংসার নিবৃত্তি অর্থাৎ অপবর্গ হইয়া থাকে। সুতরাং এই স্থানেই আধ্যা- ? ত্মিক, আধিভৌতিক, আধিদৈবিক দুঃখত্রিতায়ের নিবৃত্তি হয়। তাহা হইলেই । বুঝিতে হইবে, উপনিষৎ আখ্যায় আখ্যাত গ্ৰন্থ বা শব্দসমূহ প্ৰতিপাদিত ব্ৰহ্মবিষয়ক । বিজ্ঞানই পরা বিদ্যা, এবং ঋগ্বেদাদি যাহা প্ৰতিপাদনা করিয়াছেন, উহার জান । অপরাবিস্তা। মুণ্ডকোপনিষদে উক্ত হইয়াছে—“দ্বে বিস্তে বেদিতব্যে ইতিহ স্ম যৎ ব্ৰহ্মবিদে বদন্তি, পরা চৈবাপরােচ। তাত্রাপরা ঋগ্বেদে যজুৰ্বেদঃ সামবেন্দো২থর্ববেদ শিক্ষাকল্পেব্যাকরণং নিরুক্তং ছন্দো জ্যোতিষমিতি। অর্থ পরা বয়া তদীক্ষরমধিগম্যতে।” ( মুণ্ডকোপনিষৎ ১/১৫)। বেদার্থভিজ্ঞ পরমাৰ্থদৰ্শী পুরুষ গণ বলিয়াছেন, পরা এবং অপর এই দুই প্রকার বিদ্যাই জ্ঞাতব্য। তাহার মধ্যে ঋগ্বেদ, যজুৰ্বেদ, সামবেদ, ও অথর্ববেদ, এবং শিক্ষা, কল্প, ব্যাকরণ, নিরুক্ত, ছন্দ ও জ্যোতিষই হইল অপরা। অর্থাৎ শিক্ষাদি ষড়ঙ্গযুক্ত চারি বেদ-ভখাবিধ । শব্দ রাশির বিজ্ঞান এবং তৎপ্রতিপাদ্য অর্থের বিজ্ঞান অপর বিদ্যা। আর : যাহার দ্বারা সেই অক্ষর অর্থাৎ পরমাত্মা অধিগত হয়, তাহাই পরাবিদ্যা। শ্রুতি । স্থানান্তরে বলিয়াছেন “নাবেদ বিন্মনুতে তংবৃহত্তম” যিনি বেদ জানেন না, তিনি । সেই বৃহৎ পরমাত্মাকে জানিতে পারেন না। এই উপনিষৎ অনেকগুলি ; কিন্তু । পরম পূজ্যপাদ ভগবান শঙ্করাচাৰ্য্য ঈশ, কঠ, কেন, প্রশ্ন, মুণ্ডক, মাণ্ডুক্য, ঐতরেয়, তৈক্তিরিয়, ছন্দোগ্য ও বৃহদারণ্যকোপনিষদের ভ্যান্য রচনা করিয়াছেন - এই দশখানি উপনিষৎ ভিন্ন শ্বেতাশ্বতরোপনিষৎ, কৌষিতকী ব্ৰাহ্মণোপনিষৎ, . মৈত্ৰেযুপনিষৎ, আরুণ্যোয়ুপনিষৎ প্রভৃতি আরও অনেকগুলি উপনিষৎ আছোঁ, ইহারা সকলেই নিগুৰ্ণব্ৰাহ্মবিদ্যা প্রতিপাদিত করে। অথর্ববেদের সৌভাগ” কাণ্ডেও অনেকগুলি উপনিষৎ দেখিতে পাওয়া যায়। তাহার অধিকাংশই সগুণ ব্ৰাহ্মবিখ্যার উপদেশে পরিপূর্ণ। পূজ্যপাদ স্বৰ্গীয় মহামহোপাধ্যািদ । চঅকান্ত তর্কালঙ্কার মহাশয়ও তাহার দ্বিতীয় বর্ষের প্রথম বেদাঙৰীকৃষ্ঠা',