পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৬৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তাহার প্রধান মন্ত্রী হইলেন। অক্ষশিলায় সংবাদ গেল। সুসীম শুনিলেন, . পিতা মুরিয়াছেন এবং অশোক পিতৃসিংহাসন অধিকৃত করিয়াছেন। কালবিলঙ্ক । না করিয়া তিনি সসৈন্যে পাটলিপুত্র অভিমুখে অগ্রসর হইলেন। অশোকও প্ৰস্তুত । ছিলেন। নগরের প্রথম ও দ্বিতীয় দ্বারে এক একজন নগ্ন, তৃতীয় দ্বারে রাধগুপ্ত, চতুর্থ দ্বারে স্বয়ং অশোক উপস্থিত রহিলেন। দ্বারের সম্মুখে পরিখা । খনন করিয়া খন্দির ও অঙ্গার পূরিয়া। তদুপরি এক অশোকমূৰ্ত্তি রক্ষিত । ठ्छ्रेवा । “সুসীম অশোকের সহিত যুদ্ধ করিবার জন্য পূৰ্ব্বদ্বারে প্রবেশ কছিলেন t - প্রবেশমাত্রই অঙ্গারপূর্ণ পরিখায়:পতিত হইলেন। এই সঙ্গে সুসীমের লীলাখেলা ৷ শেষ হইল।” মৌৰ্যসম্রাট অশোকের বাল্যজীবন পাঠ করিলে সহজেই মনে হইবে যে, তিনি । যৌবনারম্ভেউদ্ধত-স্বভাবহেতু সুদূর পঞ্জাবসীমান্থ তক্ষশিলায় নিৰ্বাসিত হইয়া- ? ছিলেন। ইহা অসম্ভব নহে যে, তিনিই সেই সময়ে আলেক্সান্দরের শিবিরে । সাহায্যলাভার্থ উপস্থিত হইয়াছিলেন এবং আলেক্সান্দর সেই উদ্ধত যুবকের প্রতি অসন্তুষ্ট হইয়া তাহাকে উপেক্ষা করিয়াছিলেন। ৩২৫ খৃঃ পূৰ্ব্বাব্দে সেপ্টেম্বর মাসে আলেক্সান্দর ভারত পরিত্যাগ করেন। এই সময়ে অশোক পঞ্জাবের । কোন কোন স্থান অধিকার করিয়া রাজা হইয়া বসেন। ৩২৩ খৃঃ পূৰ্ব্বাব্দে । আলেক্সান্দরের মৃত্যুসংবাদ ভারতে পৌছিবামাত্র দেশীয় সামন্তরাজগণ গ্ৰীক-. দিগকে ভারত হইতে তাড়াইবার চেষ্টা করেন। এই সময়ে তক্ষশিলারাজের মৃত্যু হয় এবং অশোক বহু দলবল সংগ্ৰহ করিয়া তক্ষশিলা অধিকৃত করেন। অল্পকাল মধ্যেই সম্রাট বিন্দুসারের পীড়ার সংবাদ পঞ্চনদে পৌছিল। অশোক পিতৃসিংহাসন অধিকৃত করিবার জন্য সসৈন্যে পাটলিপুত্রে উপনীত হইলেন । , রাজমন্ত্রী তাহার প্রভাবের ও শক্তিমত্তার পরিচয় পাইয়া বিন্দুসারের জ্যেষ্ঠপুত্র, । সুসীমকে রাজধানী হইতে বহুদূরে সরাইয়া রাখিলেন, তাই বিন্দুসারের মৃত্যুর পর - অশোক সহজে পাটলিপুত্রের সিংহাসন অধিকৃত করিয়াছিলেন। এই অশোকই ; নানা শিলানুশাসনে প্রিয়দর্শী নামে ও গ্ৰীকদিগের গ্রন্থে Sandrocottus. (চন্দ্ৰগুপ্ত) নামে পরিচিত হইয়াছেন। ৩১৭ খৃঃ পূৰ্ব্বাব্দে ভারত ছাড়িয়া, । গ্ৰীক বীরগণ যখন গর্বিনি-রণক্ষেত্রে উপস্থিত হয়েন, সেই সুযোগে তিনি দেশীয়, : সামন্তবর্গকো উত্তেজিত করিয়া ভারতপ্রান্ত হইতে গ্ৰীকদিগকে বিতাড়িত ও সমগ্ৰ তু E DDB DBDSS DBDDB DBDB BD g SDD S DDDDBBBDS