পাতা:আর্য্যাবর্ত্ত (প্রথম বর্ষ).pdf/৭৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eeeSeA LASSLS0SAqeqeeTeSTeS S A AA S AAAAAAAAqMeAeqeqi : بهٔ مانند . " : : بنه : ሹ ቕ5. ̆ኳ(: ፩፰ዳ፩ |'•ጙ....፩፥ ❖ . . ' in ... ရွီးမှ • 5. է հն . . r r yr . . . સ-: . i. . ... : به Н "...it ". . . 品 'ዶ.. ::÷”,ጂ ' - , и и В - - в и . " . نفس - متنه : حسب مشعر ۔ عمعنة - :::.:... ۔ ۔ ۔ ۔ . '... . بهمئی - - : 唱 -" = م . পুরাপেক্ষা জল কমিয়া গিয়াছে। সুতরাং পুর্বে সেগুলি পরিপূর্ণ থাকায় বৈপ্লৱকাল ধক্সের (সিউনি, ডোল প্রভৃতি) সাহায্যে ক্ষেত্রে জল-সেচন করা টঙ্ক, এখন সেগুলি দ্বারা সুচারু রূপে জল-সেচন হইতেছে না। সুতরাং, জীৱ পরিবর্তনের সহিত কৃষি যন্ত্রাদির পরিবর্তন অথবা নুতন যন্ত্রাদির প্রবর্তন না হওয়ায়, কৃষিকাৰ্য্যের অবনতি হইতেছে। :৭। গোবংশের অবনতি। আমাদের দেশে গোবধােশর উত্তরোত্তর অবনতি হইতেছে। পূর্বের স্যায় বলিষ্ঠ, হৃষ্টপুষ্ট, কৰ্ম্মঠ ত্বৰ এখন প্রায় স্বাক্ষাপ্য। গোবিংশ ক্রমশঃ দুর্বল ও হীনবীৰ্য্য হইতেছে। যে সকল বৃষের স্বারা এক্ষণে কৃষকগণ হলচালনা করে, সেগুলির শোচনীয় অবস্থা দেখিলে ‘ৰাজৰিকই দুঃখ হয়। কৃষকরা অযথা গালি বর্ষণ করিয়া ক্ৰমাগত প্রহার করিলেও ইহাদিগকে প্রকৃত কৰ্ম্মক্ষম করিতে পারে না। অনেকের বিশ্বাস গোৰাংশের এইরূপ অবনতির প্রধান কারণ দেশে গোচারণ ভূমির অভাব। তাহারা বলেন,-“পুর্বে প্রতি গ্রামে গোচারণ ভূমি যথেষ্ট ছিল। গবাদি পশুগণ উক্ত মাঠে দিবাভাগে যথেচ্ছ বিচরণ করিয়া দেহের পুষ্টিসাধন করিতে পারিত ; সম্প্রতি জমীদারগণের অর্থ-পিপাসায় ঐ সমস্ত গোচারণ ভূমি নষ্ট * রাগিয়াছে। কৃষকগণ যে সমস্ত স্থানে গবাদি পশু রক্ষা করে, তাহ। f 闸 স্ত কদৰ্য্য। তাহারা ঐ সকল পশুকে যথেষ্ট যত্ন করে না ও উপযুক্ত আহার দেয় না। ঐ রূপ নানা কারণে উক্ত পশুগণের স্বাস্থ্যহানি হইতেছে ও উদ্ধাৱা হীনবীৰ্য্য হইতেছে।” গোচারণ ভূমির অভাব যে একটা কারণ, য়ে কথা আমরাও স্বীকার করি ; তবে ইহাই প্রধান কারণ নহে। সুতরাং কেবল জৰীদারের অর্থ-পিপাসায় যে গোবিংশের দিন দিন অবনতি হইতেছে, -ৈএ কথা আমরা স্বীকার করি না। আমাদের বিশ্বাস, এই অবনতির প্রধান কারণ,-বলবীৰ্য্যশালী বৎস্যোৎপাদনকরণার্থ দেশে সুন্থ ও বলিষ্ঠ :খালীবর্দর অভাব বৃদ্ধি হইয়াছে। আজকাল যে সকল বৃষ গোবিংশ রক্ষা করিতেছে, সেগুলি এই কাৰ্য্যের সম্পূর্ণ অনুপযুক্ত। -