পাতা:আশুতোষ স্মৃতিকথা -দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/১৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


રર আশুতোষ-স্মৃতিকথা আপন প্ৰাঙ্গণ-তলে দিবস-শর্বরী বসুধারে রাখে নাই। খণ্ড ক্ষুদ্র করি।” যেথা বাক্য হৃদয়ের উৎস-মুখ হতে উচ্ছসিয়া উঠে, যেথা নিবারিত স্রোতে LSL S LLL BDL DDS DBDBD অজস্র সহস্ৰবিধ চরিতার্থতায়”— আশুতোষের কল্পনা এইরূপ ভাব লইয়াই বিশ্ববিদ্যালয় গঠন-কাৰ্য্যে ব্ৰতী হইয়াছিল । পৃথিবীর সকলে জানুক, বুঝিতে পারুক, ভারত এখনও জ্ঞানে ও বিদ্যায় জগতের শীর্ষস্থান অধিকার করিয়া আছে। এইটুকু প্ৰতিপন্ন করিবার জন্যই তিনি সঙ্কীর্ণত ভুলিয়া যাইয়৷ মিলনের ক্ষেত্র গড়িয়া তুলিতেছিলেন। এই জন্যই তিনি এই বিদ্যাপীঠে আসিয়া জ্ঞানানুশীলন করিবার জন্য পৃথিবীর সর্ব জাতিকে আহবান করিয়াছিলেন এবং বাঙ্গালী ছাত্রদিগের মধ্যে বিবিধ জ্ঞান শিক্ষা দিবার জন্য নানা দেশীয় অধ্যাপক নিযুক্ত করিয়াছিলেন। “প্ৰাচীন কীৰ্ত্তি-উদ্ধার ও প্ৰাচ্য ভাষার অনুশীলনের জন্য তিনি পৃথিবীর সমস্ত শিক্ষিত-মণ্ডলীকে আহবান করিয়াছিলেন। বিলাতের প্ৰাচ্য বিদ্যার এবং আরও কত দেশেরই পণ্ডিতগণ আশুতোয্যের নিমন্ত্রণে সাড়া দিয়া কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে আগমন করিয়াছিলেন। “এদিকে অধ্যাপকগণের মধ্যে জাপানী, চৈনিক, দ্রাবিড়ী, সিংহলিজ, মারহাট্টা, টিবেটান প্রভৃতি নানাদিগদেশাগত পণ্ডিতেরা তে। আমাদের বিদ্যাপীঠ আবিরত কলরবে মুখরিত করিতেছেন। কনভোকেশনের সময় সে কি দৃশ্য ? কাহারও উষ্ণীষে রামধনুর বর্ণ খেলিতেছে, কাহারও কৃষ্ণ টুপি মন্দিরের চূড়ার মত উচু হইয়া আছে, একদিকে পাৰ্বত্য লামার রোমাবৃত শিরোভূষণের পার্শ্বদেশ চুম্বন করিয়া সিরাজগত মৌলভির প্রকাণ্ড পাগড়ির স্বর্ণখচিত রেখাগুলি দেখা ৰাইতেছে। আমাদের এই বিদ্যাশালাকে তিনি সর্ব জাতির মিলন-স্থান জগন্নাথক্ষেত্রে পরিণত করিয়াছিলেন।” * আশুতোষ নয়ন-সমক্ষে এই মহামিলনের চিত্ৰ দেখিতে পাইয়া আনন্দ-গদগদ চিত্তে বলিয়াছিলেন “আমি যেন দেখিতে পাইতেছি, ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের জনসাধারণের মধ্যে স্ব স্ব দেশের ভাষার যে ব্যবধান বা প্ৰাচীর ছিল, যাহার জন্য পরস্পরের ভাবের বিনিময় -করিতে পারিত না, সেই ব্যবধান-প্রাচীর যেন ধূলিসাৎ হইয়াছে। এখন আর পর-পর ভাব নাই, সব এক হইয়া গিয়াছে। বাঙ্গালীর কণ্ঠে গুর্জরের কণ্ঠ মিশিয়া, এক অভূতপূর্ব স্বপ্নময় সঙ্গীতের প্রস্রবণ ছুটিতেছে। আমি এ বিষয়ে খুব আশ্বস্ত। ভারতবাসীর একাগ্ৰতা, অধ্যবসায় ও আত্মসমর্পণের কথা যখন মনে করি, তখন আমি বিশ্বাস করিতে

  • বঙ্গবাণী ( আশুতোষ-সংখ্যা )--শ্ৰীদীনেশচন্দ্ৰ সেন লিখিত প্ৰবন্ধ দ্রষ্টব্য ।