পাতা:আশুতোষ স্মৃতিকথা -দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


RR আশুতোষ-স্মৃতিকথা করিতে চােখের সম্মুখ দিয়া ছাড়িয়া চলিয়া গেল। এই ঘটনার পর আশুতোষের এ সম্বন্ধে সতর্কত একটা অভ্যাসে দাড়াইয়া গিয়াছিল। রাধিকাপ্ৰসাদ ১৮৮২ খৃষ্টাব্দে সিনেটের সভ্য মনোনীত হইয়াছিলেন এবং তদবধি তঁাহার নিকট বিশ্ববিদ্যালয়-সংক্রান্ত যে সমস্ত কাগজ-পত্ৰ, পুস্তক ও ‘মিনিট’ আসিত, তদীয় গৃহে সেই সকলের এক অতীব আগ্রহশীল পাঠক জুটিয়াছিলেন, যিনি নীরবে অবসরকাল সে গুলি একরূপ গ্ৰাস করিয়া ফেলিয়া ভবিষ্যৎ কীৰ্ত্তি-মঠ গড়িবার পরিকল্পনা করিতে ছিলেন। তিনি তাহার ভ্রাতুষ্পপুত্র আশুতোষ । রাধিকাপ্ৰসাদের দুই পুত্ৰ-জ্যেষ্ঠ গিরীন্দ্ৰচন্দ্র এবং কনিষ্ঠ ফণীন্দ্ৰচন্দ্র। পাটের ব্যবসায়ে গিরীন্দ্ৰচন্দ্র পৈত্রিক সম্পত্তি সমস্তই নষ্ট করিয়া ১৯১১ খৃষ্টাব্দে পরলোকগত হন । f2 s 26lečfs2Ott छन्-»७ शू:, »१शे छिंगक्षद्र भूङ्गा-Szध्>२ शू:, S७शे छि८मश्त्र জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা দুর্গাপ্ৰসাদের দ্বারাই শৈশবে গঙ্গাপ্রসাদ লালিত-পালিত ও শিক্ষা প্ৰাপ্ত হইলেও অপূর্ব মেধাবী ছিলেন বলিয়া তরুণ যৌবন হইতে তিনি অনেক পৰীক্ষাতেই বৃত্তিলাভ করিয়া ভ্ৰাতার গুরুভার কথঞ্চিৎ লাঘব করিতে পারিয়াছিলেন । যে বৎসর কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় প্ৰতিষ্ঠিত হয়, সেই বৎসর (১৮৫৭ খৃ:-) গঙ্গাপ্রসাদ হেয়ার স্কুল হইতে এণ্টান্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। তখন এল-এ ১৮৬১ খৃঃ বি-এ পাশ । ( আধুনিক আই-এ) পরীক্ষার সৃষ্টি হয় নাই। এণ্টান্স আইন শিক্ষা পরীক্ষা উত্তীর্ণ হওয়ার পর চারি বৎসর পরে বি-এ পরীক্ষা দেওয়ার নিয়ম ছিল। তদনুসারে ১৮৬১ খৃষ্টাব্দে তিনি প্রেসিডেন্সী কলেজ হইতে বি-এ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। তাহার পর ব্যারিষ্টার মনটিওর নিকট কিছুকাল আইন অধ্যয়ন করেন। সহসা তিনি আইনের পথ পরিত্যাগপূর্বক ডাক্তারী ব্যবসায়ের জন্য প্ৰস্তুত হইবার সঙ্কল্প করিয়া মেডিক্যাল কলেজে ভৰ্ত্তি হইলেন। ১৮৬১ খৃষ্টাব্দে