পাতা:আশুতোষ স্মৃতিকথা -দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/৭৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SVV আশুতোষ-স্মৃতিকথা সেই অংশটুকু বঙ্গের লাট লর্ড রোল্যাণ্ডসে (অধুনা মাকুইস অব জেটুল্যাণ্ড) মহোদয়ের নিকট পাঠাইয়া প্রার্থনা করিলাম যে, তিনি যদি ঐগুলি উপযুক্ত মনে করেন, তবে যেন এক ছত্র অনুকূল মন্তব্য লিখিয়া আমার পরিশ্রম সার্থক করেন। তিনি “মহুয়া” (ইংরাজী অনুবাদ ) পড়িয়া এত সস্তুষ্ট হইলেন, যে প্ৰাৰ্থিত এক ছত্র মন্তব্যের স্থলে পূরোপুরী একটি ভূমিকা লিখিয়া পাঠাইলেন। সকলে বুঝিলেন যে, যে পল্লী-গীতির আমি অজস্র প্রশংসা করিয়াছি তাহ নিতান্ত বাজে নেহে। এই ব্যাপারে আর্থিক অসচ্ছলতার প্রতি ভ্ৰক্ষেপ না করিয়া আশুবাবু বিশেষ উৎসাহ দেখাইতে লাগিলেন, আমার পিঠে চাপড় মারিয়া বলিলেন-“আপনি আপনার কাজ করিয়া যাউন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাপাইবার ভার লইবো,-সে। চিন্তা করিবার আপনার দরকার নাই।” হায়! তাহার এইরূপ দুই-একটি উক্তিতে যে আমরা দেহে মত্ত হস্তীর বল পাইয়াছি, সেরূপ আর কোথায় পাইব ? এই প্ৰাচীন পল্লী-গাথা-সংগ্রহে আমার কোন স্বাৰ্থ ছিল না, বরং আমি নিজে এই কাৰ্য্যের জন্য এতটা অতিরিক্ত কৰ্ত্তব্যের বোঝা মাথায় তুলিয়া লইলাম, যাহাতে আমার স্বাস্থ্য-ভঙ্গ হইল। সরকার বাহাদুরের নিকট এই পল্লীগীতি-সংগ্রহ ও ছাপাইবার ব্যয়-ভার আংশিক রূপে পাইবার জন্য আবেদন করিলাম। আমি লিখিয়াছিলাম, শুধু ময়মনসিংহে নহে, বঙ্গের অন্যান্য স্থানেও এইরূপ গাথা অবজ্ঞাত অবস্থায় পড়িয়া আছে,-সেগুলির সংগ্রহের জন্য কয়েকটি লোক নিযুক্ত করা দরকার। বহু চেষ্টার পর সরকার বাহাদুর তিন বৎসরের জন্য অৰ্দ্ধেক ব্যয় বহন করিতে সম্মত হইলেন ; প্রতি বৎসর তঁাহারা এতদৰ্থে তিন হাজার টাকার কিছু বেশী দিয়াছিলেন । চন্দ্ৰকুমার নিযুক্ত হইলেন,-তাহা ছাড়া আরও তিন জন নিযুক্ত হইয়াছিলেন। শিক্ষা-বিভাগের ডিরেক্টর ওটেন সাহেবের সঙ্গে আমার লোকগীতিক-সংগ্ৰাহক নির্বাচন-সম্বন্ধে কথাবাৰ্ত্ত হইল। ভ্রমণের ব্যয়-সমেত মাসিক নিয়োগ ৭.০২ টাকা বেতন ধাৰ্য হইল। ওটেন সাহেব বিজ্ঞাপন দিতে অনুরোধ করিয়া বলিলেন, ৭০২২ টাকায় আজকাল এম, এ-পাশ প্ৰাৰ্থী অনেক পাওয়া যাইবে। আমি বলিলাম-“এম, এ ; বি, এ-পাশ তো এ কাৰ্যের কোন গুণাপনা বলিয়া আমি স্বীকার করিই না, বরং ঐ রূপ লোকের দাবী অগ্ৰাহ