পাতা:আশুতোষ স্মৃতিকথা -দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


W 8 উন্নতি-কল্পে উৎসর্গীকৃত জীবন-নৈবেদা আশুতোষের যদি ঈষৎ প্রতিচ্ছায়া এই পুস্তকে পড়িয়া থাকে, তবেই আমি আমার সমস্ত শ্রম সার্থক মনে করিব। এই পুস্তক প্রণয়ন-কালে আমি স্বৰ্গীয় মহেন্দ্ৰনাথ পিঙ্গু নিধির বহু প্ৰবন্ধ, শ্ৰীযুক্ত শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়-লিখিত দুঃশুতোষ-প্রসঙ্গ (Representative Indians' st- g (34 অন্তর্গত), আশুতোষের পিতৃবা-কন্যা শ্ৰীমতী , বিনোদবাসিনী দেবী-লিখিত অসমাপ্ত আখ্যায়িকা (“বঙ্গবাণী' পত্রিকায় প্রকাশিত), শ্ৰীযুক্ত অতুলচন্দ্ৰ ঘটক-প্রণীত “আশুতোষের ছাত্র জীবনী’, আশুতোষের মৃত্যুর পরে প্রকাশিত, তৎসম্বন্ধীয় বহু ইংরাজী ও বাঙ্গলা-পত্রিকার সন্দর্ভ এবং অপরাপর নানা স্থান হইতে সাহায্য লাভ করিয়াছি। আমি বিশ বৎসর কােল সিনেটের সদস্য ছিলাম, বিশ্ববিদ্যালয়ংক্রান্ত বহু প্রতিষ্ঠানের সদস্য, এবং পরে কোন কোন বোর্ডের সভাপতি-স্বরূপ কাজ করিয়াছি, এই সূত্রে দীর্ঘকাল আশুতোষের সঙ্গে ঘনিষ্ট ভাবে মিশিবার সুযোগ পাইয়াছি। পর পর কয়েক বৎসর আমি তৎকৃত মনে মনের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ে রিডার’-স্বরূপ বক্ততা করিয়াছি। নানা বিষয়ে, বিভাগে এবং তদীয় গৃহে আমি তঁহাকে যেরূপ দেখিয়াছি, সেইরূপ আ.ে -অঙ্কনের চেষ্টা পাইয়াছি। তবে স্মৃতির উপর নির্ভর করিয়া যাহা লিখিয়াছি, তাহাতে মাঝে মাঝে ভুল-ভ্ৰান্তি থাকিতে পারে, এজন্য ক্ষমা ভিক্ষা করিতেছি । পরিশেষে কৃতজ্ঞতার সহিত স্বীকার করিতেছি, আশুতোষের ষ্ঠতাতপুত্ৰ শ্ৰীযুক্ত সতীশচন্দ্ৰ মুখোপাধ্যায়ের নিকট হইতে আমি ত তোষের পিতামহ বিশ্বনাথের হাতের লেখা রোজনামচার মূল পুস্তিকাখনি পাইয়াছি। ! পরিশিষ্টে সেই হস্তলিপির কিয়দংশের প্রতিলিপি এবং সমস্ত পুস্তিকাখনি উদ্ধত করিয়া দিলাম। পরিশিষ্টে শ্ৰীযুক্ত শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের সম্মতি-ক্ৰমে তাহার পিতৃদেব-সম্বন্ধীয় প্ৰবন্ধটির কতকাংশের বঙ্গানুবাদ করিয়া দিয়াছি। আচাৰ্য্য প্ৰফুল্লচন্দ্র রায় ও দয়া করিয়া তঁহার প্রবন্ধটি উদ্ধত করিবার অনুমতি দিয়াছেন এবং সেই সম্মতি-পত্রে অতিশয় সৌজন্য ও অভ্যস্ত নিরাভিমান বিনয়ের PÇ37 foi f3 g3 c5 i—“Indeed to be quoted by the great historian of Bengali literature is really something to be proud of."