পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


• ইন্দ্রচন্দ্র । করিয়া দিলেন ; কেবল জোড়া বৎসরে শুভকৰ্ম্ম করিতে নাই বলিয়। পুঞ্জেষ্টি যাগ স্থগিত রাখিলেন । এই ইন্দ্রচন্দ্রই অদ্য প্রাতেঃ হরকালি মুখোপাধ্যায়ের হস্ত হইতে ছকা লওয়ায় মুখে । পাধ্যায় মহাশয় তর্জন গর্জন করিয়া গালি দিতেছিলেন । জমীদার চন্দ্রশিখর চট্টোপাধ্যায় মহাশয়ের কাছারী বাড়ির পার্থে হরকালী মুখোপাধ্যায়ের বাস্তু। পূৰ্ব্বে মুখোপাধ্যায় মহাশয় কলিকাতার এক সাহেবের হোসে সরকারী করিতেন ; এক্ষণে বৃদ্ধ হওয়ায় কৰ্ম্ম পরিত্যাগ করিয়া বাটতেই বাস করেন । বাটীর চারিদিক ইষ্টকের প্রাচীর দ্বারা ঘেরোয় করা। বহির্বটির দুই পাশ্বে দুইটী বৈঠকখান ; সন্মুখে চণ্ডীমণ্ডপ, চণ্ডীমণ্ডপের ছুই পাশ্বে সারিবন্দি অনেকগুলি ধানের মরাই । তৎপশ্চাৎ অন্দর, অনারের পর বাগান সম্বলিত খিড়কির পুষ্করিণী। স্ত্রী, নলিনীনাথ নামে ষোড়শবর্ষ বয়স্ক এক পুত্র, পুত্রবধূ এবং মহামায়া নামে এক একাদশ বর্ষীয়া অবিবাহিত কন্যা লইয়া মুখোপাধ্যায় মহাশয়ের সংসার । সমান ঘর পাওয়া যায় নাই বলিয়া মুখোপাধ্যায় মহাশয় এতাবৎ কন্যার বিবাহ দিতে পারেন নাই; এজন্য বিশেষ উদ্বিগ্ন । পুত্ৰ নলিনীনাথ আধুনিক রকমের সুশিক্ষিত না হইলেও বিষয়াশয় রক্ষণাবেক্ষণে সমর্থ। বাল্যকালাবধি ইন্দ্র চন্ত্রের সহিত প্রণয়, এইজন্য ইন্দ্রচন্দ্র সময়ে সময়ে মুখোপাধ্যায় মহাশয়ের বাটতে. যাইতেন ; ইহাতে মুখোপাধ্যায় অসন্তুষ্ট বই কখন সন্তুষ্ট নহেন। o