পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/১২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ss. ३झध्डछ । এহেন বাজারে এহেন বিক্রেতার নিকট আজ আমাদের ইন্দ্রচন্দ্র এবং কৃষ্ণধন বিচার ক্রয় কয়িতে উপস্থিত হইয়াছেন । উভয় পক্ষই বড় বড় নামজাদ দালাল নিযুক্ত করিয়াছেন । কৃষ্ণধন ইন্দ্র চন্দ্রের নামে নালিস করিয়াছেন যে, ইন্দ্র চন্দ্র তাহাকে তাহার সম্পত্তি ভোগ দখল করিতে দেন না । শুrম বাবু, পোষ্টমাষ্টার, গুরু মহাশয়, ইন্দ্র চন্দ্রের শ্বশ্রী হরকালি মুখোপাধ্যায়, শ্যালক নলিনীনাথ এবং অপরাপর অনেকেই মকদম{ দেখিতে, সাক্ষ্য দিতে এবং তদবির করিতে আসিয়াছেন । অনেকক্ষণের পর মকদ্দমার ডাক হইল ; আসামী ফরিয়াদী উভয়েই কাঠ গরার ভিতর দাড়াইলেন । প্রথমে ফরিয়াদি উকিল বক্তৃত। দ্বারা বিচারককে বুঝাইয়া দিলেন যে, আসামীর মাতুল মৃত্যু কালে এক উইল দ্বারা তাহার সমস্ত সম্পত্তির পনর আন তিন পাই ফরিয়াদীকে ভোগ বিক্রয় করিবার ক্ষমতা দিয়াছেন ; অসামী ইন্দ্র চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় বলপূৰ্ব্বক তাহাকে সেই সম্পত্তি ভোগ দখল করিতে দেন না এই জন্য হুজুরের নিকট আমার মক্কেল সুবিচারের জন্য আবেদন করিতেছে। ইন্দ্র চন্দের উকিল উঠিয় দাড়াইলেন । বলিলেন “ধৰ্ম্মাবতার এ উইল জাল, আসামী মৃতব্যক্তির পোষ্যপুত্র, তিনি মৃতু্য কালে ঐ পনর আন তিন গাই আসামী ইন্দ্র চন্দ্রের নামে এবং এক পাই ফরিয়াদির নামে উইল করিয়া যান। আর এ উইল যে জাল তাহার কোন সংশয় নাই । উইল লিখিবার কালে যাহার। উপস্থিত ছিলেন তাহদের তলব হইল , সকলেই উপস্থিত হইল, কেবল র্যাহার দ্বারা উইল লেখা পড়া হইয়াছিল তিনি উপস্থিত হন নাই ; রাজকুমার নিরুদেশ । - প্রথমে মাষ্টার মহাশয় সাক্ষ্য দিলেন যে, ৮ চন্দ্রশিখর চট্টো