পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অষ্টম পরিচ্ছেদ । 용 গু ! কি রকম ? শু্যা । যেমন চোর মোর ডাকাত, চোর যা করে ডাকাতে ঔ তাই করে, কিন্তু চোরের নাম শুনলে ঘৃণা হয়, আর ডাকাতকে ভুয় করে ; পোষ্টমাষ্টার বাবু লাফাইয়া উঠিলেন। বলিলেন “বাহব। শ্রামবাবু, বেঁচে থাক । একে সব হচ্চে মেটাল ফিলজফি ; অনেক দিন পড়েচি বাবা, আর কিছু মনে নাই । গুরু মহাশয়ের গাজ প্রস্তুত হইয়। কলিকায় সাজ হইল । গুরু মহাশয় অগ্নি সংযোগ করিবার চেষ্টা করিতেছেন, এমন সময়ে মাষ্টার মহাশয় বলিলেন, গুরু ওটা বাহিরে গিয়ে খাও ; মদের উপর ওর ধোয় লাগিলে ভারি নেশা হয় । গুরু মহাশয় তাহাই করিলেন । বাহিরে গিয়া গাজা খাইয়। আবার গৃহে প্রবেশ করিলেন । পোষ্টমাষ্টার বাবুর উপর গুরুমহাশয় চটিয়াছিলেন, এই জন্ম তাহার হস্তে এক গ্ল্যাস মদ দিয়া বলিলেন, “গুরু আমার উপর চোটেচে বাবা, আচ্ছা এক গ্ল্যাল থাও।” গুরু মহাশয় পোষ্টমাষ্টার বাবুর উপর পুর্ব হইতেই কুপিত হইয়াছিলেন, এক্ষণে মদ খাইতে বলায় একটা ধমক দিয়া উঠিলেন । বলিলেন, “আমি কি মদ খাই ?” পোষ্টমাষ্টার বাবু বলিলেন,“তুমি খাওনা তা আমি জানি।” গুৰু মহাশয় বলিলেন, “তবে অামাকে খেতে বল্‌চে। কেন ?” পোষ্টমাষ্টার বাবু হে হৌ শব্দে হাসিয়া উঠিলেন । বলিলেন, “আরে. মস্তারাম, এইতো বুঝলে হয় ; একি তোমার গেজা, বে একলা এক কোণে বসে থাবে। এ মদ ! এর অার একটা