পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


| ਵੋਲ਼ سراج فساعد করিয়া হস্তের লেখার সহিত মিলাইলেন । শেষ উইলের উপর অতি সাবধানে সেই নামটা লিপিলেন । মাষ্টার মহাশয় গুরু মহাশয়ের হস্ত হইতে উইল এবং পত্ৰ খানি হস্তে লইয়া লেগ। ঠিক হইয়াড়ে কি না পরীক্ষা করিলেন শুrম বাৰু মাষ্টার মহাশয়ের ক্রোড়ে যেন শুষ্টয়া পড়িলেন, বলিলেন, “কেমন হয়েছে ।’’ মাষ্টার মহাশয় বলিলেন, “হয়েছে ?” শু্যামবাবু বলিলেন, “তবে অীর কি ? এইবার আপনি অনুগ্রহ করুন ।”

  • অfমার অনুগ্রহের জন্যে কিছু এসে যাচ্চে না, এই সঙ্গে তুমি একটা সই কর” বলিয়া মাষ্টার মহাশয় পোষ্ট্র মাষ্ট্রার বাবুর झारुष्ठ ऐंठेठेठाश्वjनि प्ति८लन ।

পোষ্ট মাষ্টার বাবুর সাপ বেঙ কিছুই দেখা নাই ; প্রাপ্তি মাত্রেণ ভক্তব্যং । বিনা বাক্য ৰায়ে সহি করি লেম । শু্যামবাবুর সছি হষ্টল । সৰ্ব্ব শেষ মাষ্টীর মহাশয় সহি করিয়া উইলথানি নিজ পকেটে রাখিয়া শ্যামবাবুকে বলিলেন, “আপাততঃ এটা আমার কাছেই থাকুক। আর রাজকুমারকে কিছু এবং গুরু মহাশয়কে কিছু দিন ।” মাষ্টীর মহাশয় উইলথানি পকেটে রাখার শুণমবাবুর মুখটা একটু ভার হইল । কিন্তু মাষ্ট্রার মহাশয়কে কিছু ৰলিতে পরিলেন না । পকেট হইতে ক এক থানা নোট বাহির করিয়া মাষ্ট্রার মহাশয়ের হস্তে দিলেন । মাষ্টার মহাশয় সেই নোট গুলি হইতে পাঁচখানি দশ টাকার নোট রাজকুমারকে এবং পাচখানি গুরু মহাশয়কে দিয়া বলিলেন, “আজ অtৱ বেশী টাকা নাই ; আবার ছচার দিন বাদে দেওয়া বাবে ”