পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/৯২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইন্দ্রচন্দ্র । بواسط মহাশয় ভাবি বৈবাহিক হরকালি মুখোপাধ্যায় মহাশয়কে অনেক বুঝাইলেন, “এ বিবাহে আপনার কল্প সুখে বই অসুখে থাকিবে না ; আমার এই সম্পত্তি সকলই ইন্দ্রচন্দ্র আর আপনার কন্যার ।” জ্যেষ্ঠ পুত্র নলিনীনাথ ইন্দ্রচন্দ্রের পক্ষ সমর্থন করিয়া পিতাকে অনেক বুঝাইলেন “এক সময়ে সকলেই অমন হয়ে থাকে আবার আপনিই মুধ রে যাবে।” কাহারও কথায় বৃদ্ধের সম্মতি হইল না, শেষ গৃহিণীর তাড়নায় আর অসম্মত থাকিতে পারিলেন না । বিবাহের দিনস্থির হইল ; উভয় পক্ষেই উদ্যোগ করিতে লাগিলেন ; কিন্তু যাহার বিবাহ তিনি ইহাতে অসন্মত ;-ইন্দ্রচনা কেবল পিতার ভয়ে বিবাহ করিতেছে ।