পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/৯৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্দশ পরিচ্ছেদ । 編 **** *mamamanmesmas o: 6 বিবাহ। তুমি যারে বাম সেই হস্তভাগ দুনিয়ায় তার কিছুই নাই । এক ভেক{ হয়ে বেড়ায় মভাগ। ঘুরে ঘুরে মরে সকল ঠাই ॥ বঙ্গ সুন্দরী । জমিদার বাটতে আজ ভারি ধূম ; কাউরে টুলির তাক তাকৃসিন আর কাদির র্কাই কঁাই শব্দে পাড়া সরগরম করিয়া তুলিয়াছে । নহবতখানার উপর রহিয়। রঙ্গিয় সানাইদার তাসার তালের সঙ্গে মুলতান রাগিণীতে “অারে বাশি বাজওন শ্যাম " বলিয়। সানাই বাজাইতেছে । গ্রামের কাহারুঞ্জ বাড়িতে আজ হাড়ি চড়ে নাই ; সকল বাড়ির মেয়ের আজ জমিদার বাড়িতে সমাগত হইয়াছেন। আজ ইন্দ্র চন্দ্রের বিবাহ। বাটীর চাকর চাকরাণীরা মেজেণ্টারে ছোপান কাপড় পরিয়া হাতে রুপার বালা দিয়া চারিদিকে ছুটাছুটা করিয়া বেড়াইতেছে । দেশ দেশাস্তর হইতে বহুসংখ্যক কুটুম্ব কুটুম্বিনী আসিয়াছে। বহিকাটাতে গ্রামের সাদা চোখে গুড়ক খোরের এক এক থেলো ছকায় আমপাতার নগ লাগাষ্ট্রয়া তামাক খাইতেছেন, আর এ ধার ও ধার করিয়া বেড়াইতেছেন। পুরোহিত মহাশয়-যষ্টি পূজা মাথাল পূজায় যাহার টিকি দেখিতে পাওয়া না, যায় মাজ স্থিনি প্রভাত হইতে ন হইতে জুটিয়াছেন ; কৰ্ত্তাকে শুনাইস্ক