পাতা:উপকথা.pdf/৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


s রাধারাণী নামে এক বালিক, মাহেশে রথ দেখিতে গিয়াছিল। বালিকার বয়স একাদশ পরিপূর্ণ হয় নাই। তাহাদিগের অবস্থা পূৰ্ব্বে ভাল ছিল—বড় মানুষের মেয়ে। কিন্তু তাহার পিষ্ঠ। নাই ; তাহার মাতার সঙ্গে একজন জ্ঞাতির একটি মোকদ্বঙ্গ হয় ; সৰ্ব্বস্ব লইয়া মোকদম ; মোকদামাট বিধবা হাইকেটে হারিল । সে হারি বামাত্র, ডিক্ৰীদার জ্ঞাতি ডিক্ৰী জারি করিয়া ভদ্রাসন হইতে উহাদিগকে বাছির করিয়া দিল । প্রায় দশ লক্ষ টাকার সম্পত্তি, ডিক্ৰীদার সকলই লইল । খরচ ও ওয়াশিলাত, দিতে নগদ যাহা ছিল,তাহাও গেল ; রাধারাণীর মাতা, অলঙ্কারাদি বিক্রয় করিয়া, প্রিবিকেন্সিলে একটি আপীল করিল। কিন্তু আর আহারের সংস্থান রহিল না । বিধবা একটি কুটীরে আশ্রয় লইয়া, কোন প্রকারে শারীরিক পরিশ্রম করিয়া দিনপাত করিতে লাগিল । রাধা বাণীর বিবাহ দিতে পারিল না । কিন্তু দুর্ভাগ্য ক্রমে রথের পূর্বে রাধারাণীর মা ঘোরতর পীড়িত হুইল—ষে কায়িক পরিশ্রমে দিনপাত হুইত, তাহ বন্ধ হইল। স্বতরাং আর হার চলে না। মাতা রুগ্ন, এজন্য কাজে কাজেই তাহার উপবাস ; রাধারাণীর জুটিল না, বলিয়া উপবাস r রণের দিন তাহার মা একটু বিশেষ হইল, পধ্যের প্রয়োজন হইল, কিন্তু পথ্য কোথা ? কি দিৰে ? . o স্বাঞ্চরী কাদিতে কঁদিতে কতকগুলি বনফুল তুলিঙ্গ,