পাতা:উপকথা.pdf/৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লোকের কথা--রাধীরাণীর ক্ষুদ্র বুদ্ধিটুকুতে ইছ বুঝতে পৱিল। রাধারণী রোদন বন্ধ করিয়া বলিল, . “আমি দুঃখিলোকের মেয়ে । জামার কেহ নাই—কেবল था अाप्छ ।” . . . . - সে পুরুষ বলিল, “তুমি কোথা গিয়াষ্টিলে ?” । ब्रा । श्राधि ब्रथ cनशि८ङ शिग्राहिलाभ । बाऊँौ पाईव । क्रूि অন্ধকারে, বৃষ্টিতে পথ পাইতেছি না । পুরুষ বলিল, “ তোমার বাড়ী কোথায় ?” রাধারাণী বলিল, “ শ্রীরামপুর ।” সে ব্যক্তি বলিল, “আমার সঙ্গে আইস-আমিও এবামপুর যাইব । চল, কোন পাড়ায় তোমার বাড়ী—তাহা আমাকে বলিয়া দি ও—আমি তোমাকে বাড়ী রাখিয়া আসিতেছি। বড় পিছল, তুমি আমার হাত ধর, নহলে পড়িয়া যাইবে।” এইরূপে সে ব্যক্তি রাধারাণীকে লইয়। চলিল । অন্ধকারে সে রাধারাণীর বয়স অনুমান কারতে পারে নাই, কিন্তু কথার স্বরে বুঝিয়াছিল, যে রাধারণী বড় বালিকা ৷ এখন রাধারাণী তাছার হাত ধরায় হস্তম্পর্শে জানিল, রাধারাণী বড় বালিকা । তখন সে জিজ্ঞাসা করিল যে, “তোমার বয়স কত ?” রাধা। দশ এগার বছর— · “তোমার নাম কি ?” রাধা । রাধারাণী “ই রাধারানি ! তুমি ছেলেমানুষ একেল রথ দেখিতে গিয়াছিলে কেন ?” • ,- - তখন সে, কথায় কথায়, মিষ্ট২ কথাগুলি বলিয়া, সেই এক পয়সার বনফুলের মালার সকল কথাই বাহির করিয়া লইল । শুনিল, ষে মাতার পথ্যের জন্য বালিকা এই মালা গাধিস্থ