পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


O धैठिहानिक फ्रिए । DOuDD DD DB SS BBDYDS DBBDDK DBDS DBBD BBDB DBS sDD BD পক্ষের মধ্যে এইরূপ সন্ধি হয় যে, উভয়ে পরস্পরের শত্রুপক্ষকে কোনরূপে সাহায্য করিবেন না। সেকেন্দর ও হোসেনসাহ এইরূপ সৰ্ত্তে সম্মত হইলে সেকেন্দর দিল্লী অভিমুখে প্ৰত্যাবৃত্ত হন ও ; হোসেন সাহও নিশ্চিন্ত মনে রাজ্যশাসনে প্ৰবৃত্ত হন। CCMa সাতের রাজত্বের প্রধান ব্যাপার আসাম কামরূপ ও ত্রিপুরা বিজয় । হোসেনসাহের রাজত্বের বহু পূর্বে বঙ্গদেশে মুসলমান আধিপত্য বিস্তৃত হইলেও ঐ সমস্ত প্ৰদেশ বহু দিন পৰ্য্যন্ত আপনাদের স্বাধীনতা রক্ষা করিয়াছিল। যদিও ঐ প্রদেশ সকল মধ্যে মধ্যে মুসলমানগণ কর্তৃক আক্রান্ত হইয়াছিল, কিন্তু সম্পূর্ণরূপে বিজিত হয় নাই। হোসেনসাহ ঐ সকল পাৰ্ব্বত্য প্রদেশ জয় করিবার জন্য অনেক সৈন্য সংগ্ৰহ করেন । সৈন্যগণসহ তিনি আসাম ও কামরূপ রাজ্য জয় করিয়া আপনার পুত্রকে বিজিত প্ৰদেশ সমূহের শাসনকৰ্ত্তা নিযুক্ত করিয়া গৌড়ে প্রত্যাবৃত্ত হন। আসামের রাজা সপরিবারে সমতল প্ৰদেশ পরিত্যাগ করিয়া পাৰ্ব্বতের উপরিভাগে আশ্রয় গ্ৰহণ করেন। এই সময়ে বর্ষাকাল উপস্থিত হওয়ায়, সমস্ত প্ৰদেশ জলে 4াবিত হইয়া यांब्र, ब्रांट्छांघांप्छेब्र কিছুমাত্র নিদর্শন রহিল না। আসামরাজ সেই সময়ে পার্বত্য প্রদেশ হইতে অবতরণ করিয়া হোসেনসাহের পুত্ৰকে আক্রমণ করিয়া তাহার রসদ বন্ধ করিয়া দিলে, সুলতানপুত্র বাধা হইয়া উক্ত প্ৰদেশ পরিত্যাগ করিয়া চলিয়া vatova i কামরূপ ও আসাম জয় করিয়া হোসেনসহ চট্টগ্রাম জয়ের জন্য সচেষ্ট হন, তাহার সেনাপতি পরাগল খাঁ তজ্জন্য প্রেরিত হইয়াছিলেন । এই সময়ে চট্টগ্রামের আধিপত্য লইয়া মগরাজ ও ত্রিপুরাধিপের মধ্যে বিবাদ উপস্থিত হয়। তিন দল সৈম্ভের অসিক্রীড়ায় চট্টগ্রাম রুধির-ধারায় রঞ্জিত হইয়া উঠে । qiB BB BBDD DD DB BDBDD BB DDBB BDBD DDD S তিনি আপনার অপরিমিত সৈম্ভসহ গৌর মল্লিককে ত্রিপুরায় প্রেরণ করেন। সেই সময়ে মহারাজ ধন্যমাণিক্য ত্রিপুরার অধীশ্বর ছিলেন । তাহার সেনা