পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১৯৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


5g। इtखद९*। Y prmo উপস্থিত হইলে, মনোহর আসিয়া সীতারামের শরণাপন্ন হইলেন। এখানে সীতারামের সহিত মনোহরের সন্ধি হয়। এই সন্ধিতে স্থিরীকৃত হয় যে, উভয়ে উভয়ের বিপদ আপদে সহায়তা করিবেন। কিন্তু সন্ধিতে কি হইবে ? সীতারাম পুর্বের ন্যায়ই মনোহরের হিংসার পাত্র রহিলেন-সীতারামের পতনের জন্য মনোহর আগ্রহের সহিতই অপেক্ষা করিতেছিলেন । রাজ্যের উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে নিজ সমাজের উন্নতির জন্যও মনোহর সর্বদাই বিশেষ যত্নশীল ছিলেন । তিনি নিজে উত্তররাঢ়ীয় কায়স্থ ছিলেন, তাই নানাস্থান হইতে সন্ত্রান্ত কায়স্থ আনিয়া স্বসমাজের পুষ্টি সাধন করেন। মনোহর বিদ্যোৎসাহী ও স্বজন প্ৰতিপালক ছিলেন । তাহার সভায় সৰ্ব্বদাই দেশবিদেশের অধ্যাপক পণ্ডিত ও বিদ্বজ্জনের সমাগম হইত। তিনি পণ্ডিত ও দরিদ্র ব্ৰাহ্মণ গণকে ব্ৰহ্মোত্তর, দেবসেবার জন্য দেবোত্তর এবং অতিথিসেবার জন্য বহু সম্পত্তি দান করিয়া প্ৰকৃত ‘রাজা” নামের সার্থকতা সম্পাদনা করিয়া গিয়াছেন ! ৫৬ বৎসর রাজত্ব করিয়া ১৭০৫ খৃষ্টাব্দে রাজা মনোহর মানবলীলা সংবরণ করেন। 鸭 মনোহরের পুত্র রাজা কৃষ্ণরাম রায় বাকী কর দাখিল করিয়া নবাব মুর্শিদকুলি খ্যার নিকট হইতে রায়মঙ্গল, মহেশ্বর পাশা ও অন্যান্য কয়েকটী ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পরগণা বন্দোবস্ত করিয়া লইয়াছিলেন। বাজিতপুর পরগণার কিয়দংশ তিনি কৃষ্ণনগরের রাজার নিকট হইতে খরিদাসুত্ৰে প্ৰাপ্ত হয়েন। কৃষ্ণরামের দুই পুত্ৰ শুকদেব ও শু্যামসুন্দর। ১৭২৯ খৃষ্টাব্দে কৃষ্ণরামের পর তাহার জ্যেষ্ঠ পুত্ৰ শুকদেব রাজা হন । কৃষ্ণরামের কনিষ্ঠ পুত্র শু্যামসুন্দর পিতামহীর বিশেষ প্রিয় ছিলেন, তাই রাজা মনোহরের বিধবা রাণী শু্যামসুন্দরকে সম্পত্তির ॥০ চারি। আন অংশ প্ৰদান করিবার জন্য জ্যৈষ্ঠ পৌত্র রাজা শুকদেবকে অনুয়োধ করেন। শুকদেব uDDBB DLDBDL LYYYYBD DBBBDB 0 LD DBDD BELK SsBD BBD ছিলেন । এই সময় হইতে চাঁচড়া রাজ্য দুই অংশে বিভক্ত হইয়া বার আনা