পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দায়ুদ ও সিরাজ। N বিধান করিয়া আপনাকে কলঙ্কিত করিয়া গিয়াছেন। সিরাজ ও জগৎশেঠ, মীরজাফর প্রভৃতি সন্ত্রান্ত অমাত্যবর্গের অবমাননা করিয়া আপনার ধ্বংসের পথ উন্মুক্ত করিয়া তুলেন। তবে এস্থলে উভয়ের মধ্যে কিছু পার্থক্যও দৃষ্ট হইয়া থাকে। দায়ুদ লোদীখার পরাক্রম অসহনীয় মনে করিয়া কাহারও কাহারও পরামর্শে প্রাণদণ্ডের আদেশ দেন, কিন্তু সিরাজ বিশ্বাসঘাতক ষড়যন্ত্রকারীদিগের ব্যবহারে বিরক্ত হইয়া তাহাদিগকে অপমানিত করিতে প্ৰবৃত্ত হন । ফলতঃ উভয়ে যে ঔদ্ধত্য প্ৰকাশ করিয়া সন্ত্রান্ত আমীরগণকে পীড়িত ও লাঞ্ছিত করিয়াছিলেন তাহাতে সন্দেহ নাই। এরূপ স্থলে তঁহাদের বিচারশক্তি যে যৌবনের চাঞ্চলো বিক্ষিপ্ত হইয়াছিল, তাহা স্বীকার করিাতেই হইবে । বিচার শক্তির অভাবের জন্যই তাহাদিগকে ও ভবিষ্যতে পদে পদে নিগৃহীত হইতে হইয়াছিল। Ο সিংহাসনে উপবিষ্ট হইয়া উভয়ে দুই প্রবল প্ৰতিদ্বন্দীর সহিত সংঘর্ষ উপস্থিত করেন। কিন্তু এস্থলেও কিছু পার্থক্য আছে। দায়ুদ যে প্ৰতিদ্বন্দীর সহিত অস্ত্ৰবিনিময় করিতে প্ৰবৃত্ত হইয়াছিলেন, তঁাহার পরাক্রম বাস্তবিকই সমগ্ৰ ভারতে ন্যায় বিস্তুত হইতেছিল । সেই মোগলকেশরী ‘দিল্লীশ্বরে বা জগদীশ্বরে বা” আকবর সাহের বিপুল বিক্রমে তখন আৰ্য্যাবৰ্ত্ত ও দাক্ষিণাত্য বিকম্পিত হইতেছিল। কিন্তু সিরাজ যাহাদের বিরুদ্ধে উখিত হইয়াছিলেন, তাহাদের শক্তি বিদু্যদগ্নির ন্যায় ক্ষণে ক্ষণে বিকসিত হইতেছিল বটে, কিন্তু তাহার গর্ভে যে বীজ লুক্কায়িত ছিল, তাহা তখনও পৰ্য্যন্ত লোকের প্রত্যক্ষীভূত হয় নাই। সিরাজের সহিত সংঘর্ষে সেই বাজ মহাশব্দে আবির্ভূত হইয়া তাহাকে চূৰ্ণ করিয়া অবশেষে ভারতে হিন্দু ও মুসন্মান উভয় শক্তিকে বিচুর্ণ করিয়া ফেলে। কিন্তু ইহাও যে প্ৰবল প্ৰতিদ্বন্দ্বী তাহাতে অণুমাত্ৰ সন্দেহ নাই । দায়ুদ স্বাধীনতার রসাস্বাদ করিবার জন্য নিজেই কুঠারহস্তে মত্ত মাতঙ্গের প্ৰতি ধাবিত হইয়াছিলেন, সিরাজ ও আপনার প্রভুত্ব দেখাইবার জন্য ক্ৰয় DBDBDBDB BDBDB BDD DDB DDBD DDD DBDDBB DBBBDB S BDB ৰাদাসাহের জমিনিয়া দুর্গ অধিকার করিয়া আপনার রূপকওয়ণ নিবৃত্তি কৱাৱ ?