পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৩৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মহারাজা রাজবল্লভ সেন। Ya হইয়াছেন, এই মিথ্যা সংবাদ প্রচার করেন। বলা বাহুল্য, তাহাতেই রঘুনন্দন পরিত্রাণ পাইলেন” (১) “জপসাবাসী গোপীরমণ সেনের আবাস স্থানে “পঞ্চরত্ন” নামক অট্টালিকা বিদ্যমান ছিল, রঘুনন্দন এই গৃহে পারসি ভাষা অধ্যাপনা করিতেন, “আনন্দময়ী দেবীর প্রপিতামহ কৃষ্ণরাম দেওয়ানের জীবদ্দশায় যে রাজবল্লভ জপসা গ্রামে অবস্থান করিয়া অধ্যয়ন করিতেন, একথা অনেকে বলেন, (২) অতঃপর লেখক বলেন, রাজবল্লভ এই রঘুনন্দনের পদতলে বসিয়া: অধ্যয়ন করিতেন, ইত্যাদি। প্রথমতঃ রঘুনন্দনের কথা বলা যাইতেছে। এই মহাত্মা জপসাবাসী গোপীরমণ সেন খাসনীস মহাশয়ের সর্ব কনিষ্ঠ পুত্র। ২য় পুত্র দেওয়ান কৃষ্ণরাম রায় ও ৪র্থ পাল রামমোহন ক্রোড়ীর বিষয়ী ইতিপূর্বে বিশেষ ভাবে উল্লেখ করা হইয়াছে। প্ৰবাদ কথা হইতে অবগত হওয়া যায়, রঘুনন্দন কোন সময়ে একটি অবলার স্থান কৰ্ত্তন করায়, তাতার কারাবাসের আজ্ঞা প্রচার হয়, এজন্য তিনি পলায়ন করিতে বাধ্য হন ও জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা কৃষ্ণরাম ও রামমোহনের অনুগ্ৰহে অব্যাহতি লাভ করেন । এই সময়ে কৃষ্ণরাম ও রামমোহন বিশেষ সৌভাগ্যশালী ব্যক্তি মধ্যে পরিাগণিত। জন্মভূমির হিতকল্পে এই ভ্ৰাতৃসুগল দুইটি সৎকার্য্যে মনোনিবেশ করিয়া কৃষ্ণরাম একটি পারস্য ভাষাশিক্ষার “মািখতবের” ও রামমোহন একটি সংস্কৃত চতুষ্পাঠীর ভার গ্ৰহণ করেন। কৃষ্ণরামের স্বীয় অর্থে নিৰ্ম্মিত পঞ্চরত্ন নামক সৌধের নিমতলে, “মখতব” ও রামমোহনের ব্যয়ে নিৰ্ম্মিত । আটচালা গৃহে টোল বা চতুষ্পাঠী সংস্থাপিত হয়। উপযুক্ত মৌলবী ও ভট্টাচাৰ্য্যগণ অধ্যাপনার কাৰ্য্যে নিযুক্ত হন। শৈশবে পিতৃহীন নিবন্ধন (৩) রাজ (*) यूठ ७४ महाभद्ध-यट औदनी e * *ई। (*) vse sko-ašla aril »se jé i এই লেখকের স্বহস্তে লিখিত কোন একখানা চিঠিী যাহা, সমালোচকের নিকট বহুপুর্বে লেখা হয়।” LBBBLBD D BBBDBDBDSSEKKBS LBBBYL BBD LL LBLLBDD DDD KKDDLL DBS L0 SiD L LtBDDBDBL BBDBDS S BDS LLLLLLS LEEgiii KS অর্জন-স্পৃহা ও বিলক্ষণ ধৰ্ম্ম প্রবৃত্তি ছিল। যদিও শৈশবাষখাতে তাহার পিতৃবিয়োগ হইয়াছিল,