পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৭৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S BDDBDB D S S SuSuS LLLL S বিন্দুমতী নীরবে অশ্রুপাত করিতে লাগিলেন। ) “কেঁদনা মা, আমি তোমাকে নিতে এসেছি। তুমি খবর না দিলেও, আমাকে ছাপাইবে কেমন করিয়া, চল আমার নৌকায় চল।” এই কথা বলিয়া রাজমাতা বিন্দুমতীর হাত ধরিয়া পরিচারিকাসহ নিজ নৌকায় উঠিলেন। নৌকা রাজবাটী মুভিমুখে অগ্রসর হইল। বিন্দুমতীর বজরা ও অন্যান্য নৌকা লোকজনসহ তথা হইতে নাঙ্গর তুলিয়া ধীরে ধীরে রাজধানী বাকলায় উপস্থিত হইল। «Ց) বাকল রাজবাটীর একটি সুরমা প্ৰকোষ্ঠে একখানি সুন্দর। পৰ্য্যাঙ্ক চতুস্পদের উপর আপনার দেহ বিস্তার করিয়া অবস্থিতি করিতেছিল। পৰ্য্যাঙ্কখানি সুন্দর হইলেও শুষ্ক, কারণ তাহা কাষ্ঠনিৰ্ম্মিত, কাজেই তাহা আপনার শুষ্ক কলেবর একটি দুগ্ধফেননিভা শয্যায় আবৃত করিয়া যেন কাহাকে আশ্রয় দিবার জন্য অপেক্ষা করিতেছিল । তখন রাত্রিকাল, একটি প্ৰদীপ গৃহের কোণে লুকাইয়া যেন পৰ্যাঙ্কের দিকে মিট মিট করিয়া চাহিতেছিল। দেখিতে দেখিতে একটি যুবাপুরুষ পৰ্যাঙ্কোপরি বিস্তৃত শয্যায় আসিয়া উপবেশন করিলেন, অল্পক্ষিণ পরে তিনি শয়ন করিলেন। শয়ন করিয়া যেন তাঁহার তৃপ্তি হইতেছিল না। যুবক বারংবার পার্শ্বপরিবর্তন করিতে লাগিলেন। যেন কি এক যন্ত্রণায় তাহার হৃদয় অধিকার করিয়াছে। কিছুক্ষণ শয়ন ও পার্শ্বপরিবর্তন করিয়া তিনি আবার, উঠিয়া বসিলেন, আবার অল্পক্ষণ পরেই শয়ন করিলেন। সঙ্গে সঙ্গে পার্শ্বপরিবর্তনও চলিতে লাগিল। এইরূপে একবার উপবেশন, আবার শয়ন ও পার্শ্বপরিবর্তন, করিতে করিতে যুবক যেন সেই অল্প সময়কে কণ্টকময় মনে করিতে লাগিলেন। এক একবার তাঁহার মনে এরূপও হইতেছিল, যেন তিনি প্ৰকোট পরিত্যাগ করিতে পারিলে রক্ষা পান। পাঠক এই যুবকের পরিচয় পাইয়াছেন কি ? ইনিই বাকলাধিপতি রামচজ । S DBDB BDBDDBDBD DDDD BLBL BDB DDS LBBuuS u DBS Y